তারিখ: মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০১৯ ইং, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Share:

পেকুয়া অফিস:

পেকুয়ায় হামলায় স্কুল ছাত্রীসহ একই পরিবারের ৩ জন আহত হয়েছে।

আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। একই ঘটনায় দুবৃর্ত্তরা ওই স্কুল ছাত্রীর পিতার দোকানে গভীর রাতে মল নিক্ষেপ করে। ঘটনার জের ধরে দু’পক্ষের মধ্যে মারপিটের শংকা দেখা দিয়েছে।

১১ জুন (মঙ্গলবার) সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের সাবেকগুলদি টেকপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত স্কুল ছাত্রীর নাম সুমি আক্তার (১৬), তার পিতা কামাল হোসেন (৪৫) ও মা সাবেকুন্নাহার (৪০)।

স্থানীয় সুত্র জানায়, ঘটনার পূর্বদিন রাতে অজ্ঞাত দুবৃর্ত্তরা স্কুল ছাত্রী সুমি আক্তারদের বসতবাড়ি সংলগ্ন নলকুপে মল ছুড়ে। সকালে উৎকট দুর্গন্ধসহ ওই মল সুমি দেখতে পায়। এ নিয়ে চাঁচী এনতেহারা ও স্কুল ছাত্রী সুমির মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, এর সুত্র ধরে এনতেহারার স্বামী হোছেন আহমদ লাঠি নিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আনন্দ স্কুলের ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী সুমি আক্তারকে পিটিয়ে আহত করে। এ সময় প্রচন্ড ইটপাটকেল ছুড়ে হামলাকারীরা। ছুুড়া ইটপাটকেলের আঘাতে সুমির পিতা কামাল হোসেন ও মাতা সাবেকুন্নাহারও আহত হয়েছে।

সাবেকুন্নাহার জানায়, তারা টিউবওয়েল ও আমার স্বামীর মুদির দোকান এ দুটি পৃথক স্থানে মল নিক্ষেপ করেছে। আমাদেরকে এলাকাছাড়া করার গভীর চক্রান্তসহ কৌশল হিসেবে এ ঘটনা। আমার মেয়েসহ আমরা ৩ জন আহত হয়েছি।

Share:

আপনার মতামত প্রদান করুন ::