শিরোনাম :
উখিয়া প্রেসক্লাবের নির্বাচন কমিশনের জরুরী সভা অনুষ্ঠিত চকরিয়ায় বন বিভাগের অভিযানে ৪০ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ, ২ একর জমি উদ্ধার ইয়াবা উদ্ধার: কক্সবাজারের ২জনসহ ৪ কারবারির ১০ বছরের কারাদণ্ড জাহাঙ্গীর মেচসহ দুই রেস্টুরেন্টকে গুনতে হলো জরিমানা কোটি টাকার ইয়াবা নিয়ে চকরিয়ার ১ নারীসহ বাঁশখালীতে ৫ জন গ্রেপ্তার টেকনাফে ৬০ হাজার ইয়াবা সহ রোহিঙ্গা আটক আকাশ সম স্বপ্ন নিয়ে কক্সবাজার শিশু হাসপাতালের উদ্যোগ নিয়েছি : জেলা প্রশাসক করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় কঠোর জেলা প্রশাসন রাজধানীর পাইকারি বাজারে কমেনি সবজির দাম উখিয়া-টেকনাফের সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী আর নেই
মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ১২:০২ অপরাহ্ন

পেকুয়ায় মেয়ের জামাইর পিটুনিতে শ্বশুর হাসপাতালে

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: এপ্রিল ২২, ২০১৮ ১১:০৯ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: এপ্রিল ২২, ২০১৮ ১১:০৯ পূর্বাহ্ণ

কক্সবাজার পোস্ট ডটকম ::
পেকুয়ায় মেয়ের জামাতার পিটুনিতে হাসপাতালে ভর্তি হলেন শ্বশুর । ঘটনার জের ধরে কনে ও জামাই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। ২১ এপ্রিল রাত ৮ টার দিকে চট্রগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার পশ্চিম পুইছড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা শ্বশুর ও চাচা শ্বশুরকে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহতরা হলেন পেকুয়া উপজেলার টইটং ইউনিয়নের সোনাইছড়ি হাজির বাড়ির মৃত আহমদ ছফার ছেলে ছমিউল্লাহ(৪৮) ও তার ছোট ভাই আলী হোসাইন(৪২)। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওই দিন সন্ধ্যার দিকে ছমিউল্লাহ পেকুয়া থেকে পুঁইছড়িতে তার মেয়ে ডেজি আক্তারের শাশুর বাড়িতে যায়। যাওয়ার সময় ছোট ভাই আলী হোসেনকে নিয়ে যায়। মেয়ে ডেজি মুঠোফোনে স্বামী মারধর করছিল বিষয়টি পিতাকে জানায়। ছমিউল্লাহ দ্রুত ছুটে গিয়েছিলেন। এ সময় মেয়ের শাশুর বাড়িতে পৌছামাত্র মেয়ের স্বামী নেজাম উদ্দিন তাকে ইলেকট্রিকের টর্চ দিয়ে এলোপাতাড়ি হামলা চালায়। এ সময় চাচা শাশুর আলী হোসেন ভাতিজি জামাতাকে নিবৃত করার চেষ্টা করছিল। তারা তাকেও পিটিয়ে আহত করে। ছমিউল্লাহ জানায়, আমার মেয়েকে জানে মেরে ফেলার চেষ্টা করা হয়েছিল। মেয়ে নির্যাতনের বিষয়টি আমাকে জানায়। আমি গিয়ে মেয়েকে পায়নি। ২ জন ছোট্র নাতী আছে। এরা মায়ের জন্য কান্নাকাটি করছিল। তারা হিং¯্র প্রকৃতির লোক। আমার মেয়েকে অজ্ঞাত স্থানে রাখা হয়েছে। ছমিউল্লাহর মেয়ে পেকুয়া শহীদ জিয়া বিএম ইনষ্টিটিউট এর ১ম বর্ষের ছাত্রী জোৎ¯œা আক্তার জানায়, আমার বড় ভাই দুবাই থাকে। তিনি একটি বাড়ি নির্মান করে। একদিন আগে দুলাভাই ও আপা দাওয়াত খেতে এসেছিলেন। সেখানে আপাকে বকাঝকা করা হয়। ছমিউল্লাহর স্ত্রী মনোয়ারা জানায়, তারা খুনী। নরপিশাচের মত আমার মেয়েকে নির্যাতন করে। প্রায় সময় নেশাগ্রস্ত থাকে মেয়ের জামাই। ডেজি আক্তারের ফুফী পাখি জানায়, আমার ভাইয়ের মেয়েকে গুম করা হয়েছে। কি অবস্থায় মেয়েটিকে রাখা হয়েছে সে সম্পর্কে খোঁজ খবর নেই। আমার দুভাইকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::