তারিখ: বুধবার, ১৬ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ১লা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

Share:

পেকুয়া অফিস:

পেকুয়ায় প্রেমিককে নিয়ে পালালো গৃহবধূ। স্বামী বাড়ি পৌছানোর আগ মুহুর্তে ওই নারী তার পরকীয়া প্রেমিককে নিয়ে উধাও হয়েছে। এ সময় নগদ টাকা, মালামাল এমনকি গৃহপালিত পশু বিক্রি করে টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে চম্পট দেয়। এ খবর এলাকায় জানাজানি হলে বে-রসিক লোকজনের মাঝে চাঞ্চল্য ও কৌতুহল দেখা দিয়েছে।

১৯ মে (রবিবার) ভোর ৫ টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের দক্ষিন মেহেরনামা নন্দীরপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ওই গৃহবধূর নাম এস্তফা বেগম (২৫)। তিনি ওই গ্রামের বেলাল উদ্দিনের স্ত্রী।

স্থানীয় সুত্র জানায়, ১৯ মে ভোরে বেলাল উদ্দিনের স্ত্রী এস্তফা বেগম অজানার উদ্দেশ্যে উধাও হয়েছে। স্বামী বেলাল উদ্দিন পেশায় নির্মাণ শ্রমিক। টেকনাফে বেলাল উদ্দিন কাজ করছিলেন। ওই দিন তিনি বাড়িতে ফিরছিলেন। এর আগে স্ত্রীকে বাড়ি ফেরার বিষয়টি অবগত করে। অপরদিকে স্বামী বাড়ি পৌছানোর ঠিক আগ মুহুর্তে স্ত্রী এস্তফা বেগম স্বামীর সংসার থেকে পালায়।

স্থানীয়রা জানায়, এস্তফা পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে যায়। মেহেরনামা বাজারপাড়ার ফিরোজ আহমদের ছেলে আতিকুর রহমান ও এস্তফার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে চুপিসুরে গভীর প্রেমের সম্পর্ক হয়। ওই দিন পরকীয়া প্রেমিক প্রেমিকা অজানার উদ্দেশ্যে পালায়। এস্তফা খাতুনের জা আমেনা খাতুন জানায়, আতিক প্রকাশ ভোলাইয়াকে নিয়ে বড় ভাবী উধাও হয়েছে।

বেলাল উদ্দিনের মা জোসনা বেগম জানায়, আমার ছেলে টেকনাফ ছিল। পুত্রবধূ টাকা পয়সা নিয়ে পালিয়ে গেছে। ধান বিক্রি করে ১৫ হাজার টাকা, পশু বিক্রি করে ৪৫ হাজার টাকা স্বামীর সঞ্চিত ১লক্ষ নগদ টাকা, দুটি বন্ধকী জমির স্ট্যাম্পসহ বাড়ির থালাবাসন পর্যন্ত নিয়ে পালায়।

বেলাল উদ্দিন জানায়, আমি পেশায় নির্মাণ শ্রমিক। ওই দিন বাড়িতে আসছিলাম এ খবর স্ত্রীকে মুঠোফোনে জানায়। আমি এসে পৌছার আগেই খুব ভোরে ভোলাইয়াকে নিয়ে এস্তফা উধাও হয়েছে। ১০ বছর আগে আমাদের বিবাহ হয়েছে। ৩ টি মেয়ের পিতা-মাতা আমরা। বড় ২ মেয়েকে বাড়িতে রেখে পালায়। ছোট্র মেয়েটিকে যাওয়ার সময় নিয়ে যায়।

প্রতিবেশী নুরুল হোছাইন, ফাতেমা বেগম, জয়নাব আরা, নুরুল হকসহ স্থানীয়রা জানায়, আতিক প্রকাশ ভোলাইয়ার হাত ধরে পালিয়েছে। ওই ব্যক্তির স্ত্রী ও ছেলে-সন্তান আছে। ২ ছেলের বিবাহ হয়েছে। নাতি নাতনী আছে। বয়স্ক এ পুরুষ ও এস্তফার পরকীয়া সম্পর্ক আগে থেকে।

Share:
error: কপি করা নিষেধ !!