তারিখ: মঙ্গলবার, ২রা জুন, ২০২০ ইং, ১৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Share:

পেকুয়া অফিস::

কক্সবাজারের পেকুয়ায় কিশোরকে পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। তাকে রশি দিয়ে বেঁধে শারীরিক মারধর করে জখম করেছে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

১৮ সেপ্টেম্বর (বুধবার) বিকেল ৫ টার দিকে উপজেলার টইটং ইউনিয়নের ধনিয়াকাটা গ্রামে সুরত আলমের দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে। মারধরের শিকার কিশোরের নাম মিজানুর রহমান (১৪)। তিনি ওই এলাকার ছরওয়ার উদ্দিনের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওই দিন বিকেলে কিশোর মিজানুর রহমান ধনিয়াকাটায় সুরতআলমের দোকানে বসে গল্প গুজব করছিলেন। এ সময় একই এলাকার মৃত কেরামত আলীর ছেলে রমিজ উদ্দিন তাকে দেখামাত্র উত্তেজিত হন। এক পর্যায়ে ওই কিশোরকে কিল, ঘুষি ও লাথি মেরে টানা হেঁচড়া করে ওই স্থান থেকে কিছুদুর নিয়ে যায়। এ সময় কিশোরকে গলায় রশি পেঁচিয়ে স্বাসরুদ্ধ করে হত্যার চেষ্টা চালায়। প্রত্যক্ষদর্শীরা তাকে উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

মিজানুর রহমানের পিতা ছরওয়ার উদ্দিন জানায়, আমার ছেলেকে হত্যা করতে গলায় রশি পেঁচায়।

মা সাবিনা ইয়াসমিন জানায়, আমার ছেলেকে স্বাসরুদ্ধ করে হত্যার নিশ্চিত থেকে লোকজন উদ্ধার করেছে। দোকানের সওদাগর সুরত আলম ও তার স্ত্রী জন্নাতুল ফেরদৌস জানায়, আসলে বড় ধরনের অন্যায় হয়েছে।

Share: