শিরোনাম :
নুরুল হক, ইদ্রিস ও বেলায়েতের বিরুদ্ধে মামলা খারিজ, উচ্চ আদালতে যাচ্ছে ভুক্তভোগীরা ৬ ডিসেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ উখিয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নিরাপদ ব্যবহারে হেলপ কক্সবাজারের সচেতনতা ক্যাম্পেইন চকরিয়ায় যাত্রীবেশে বাসে ডাকাতির ঘটনায় ৬ জন গ্রেফতার উখিয়ায় অবৈধ করাতকল উচ্ছেদ, বিপুল পরিমাণ কাঠ জব্দ কক্সবাজার কারাগারে কয়েদির আত্মহত্যা মছ্লেহ উদ্দিন চৌধুরীর মৃত্যুতে টিএমসি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শোক পেকুয়ার যুবক আফ্রিকায় ডাকাতের গুলিতে নিহত টেকনাফে ৬টি সোনার বার ও মিয়ানমারের ৯৫০ কিয়াট মুদ্রা উদ্ধার চকরিয়ার ডুলাহাজারায় পাহাড় কেটে মাটি লুট : দুই ডাম্পার জব্দ
শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০২:০৯ পূর্বাহ্ন

পরকীয়া লুকাতে সন্তানকে পুড়িয়ে হত্যা

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: এপ্রিল ১৩, ২০১৮ ৫:৩০ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: এপ্রিল ১৩, ২০১৮ ৫:৩০ পূর্বাহ্ণ

কক্সবাজার পোস্ট ডটকম ::
মায়ের অনৈতিক কর্মকাণ্ড দেখে ফেলায় নিজের শিশু সন্তানকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে মা। ঘুমন্ত দুই সন্তানকে প্রেমিকের সহযোগিতায় কাঁথায় পেঁচিয়ে আগুন ধরিয়ে দেন পাষণ্ড মা।

শুক্রবার সকালে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার বাড়ৈপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
মায়ের দেয়া আগুনে শিশু সন্তান হৃদয় (৯) ঘটনাস্থলেই মারা যায়। একই ঘটনায় অপর সন্তান শিহাবের (৭) পুরো শরীর ঝলসে গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মা শেফালী বেগমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার উচিতপুরা ইউনিয়নের বারইপাড়া গ্রামের লিবিয়া প্রবাসী আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, প্রায় ১১ বছর আগে শেফালীর সাথে স্থানীয় বিল্লাল টেইলারের ছেলে আনোয়ার হোসেনের বিয়ে হয়। তবে দীর্ঘদিন ধরেই আনোয়ার হোসেন মালয়েশিয়া প্রবাসী। স্বামী বিদেশে থাকলেও শেফালী শ্বশুরবাড়িতেই দুই সন্তানকে নিয়ে বসবাস করতেন। এরই মধ্যে স্থানীয় বিল্লালের ছেলে মোমেনের সাথে তার অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে উঠে।

ঘটনার দিন রাতে মোমেন তার ঘরে অবস্থান করছিল। এসময় মায়ের সাথে অন্যপুরুষের অনৈতিক সম্পর্কের বিষয়টি দেখে ফেলায় ঘুমের বড়ি খাইয়ে দুই শিশুকে ঘুম পারিয়ে দেন মা। পরে তাদের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।
এ সময় দুই শিশুর আর্তচিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসে। তবে এর মধ্যেই আগুনে পুড়ে মারা যায় হৃদয়। গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় শিহাবকে উদ্ধার করে আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে স্থানান্তর করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা (ওসি) এমএ হক জানান, এ ঘটনায় দুই শিশুর মা শেফালী বেগমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে তার প্রেমিক মোমেন পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতার করতে পুলিশি অভিযান চলছে।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::