শিরোনাম :
ঘুমধুম পুলিশে ত্রিশ লাখ টাকার তিনটি স্বর্ণের বার উদ্ধার,এক রোহিঙ্গা গ্রেফতার উখিয়ায় বিএনপির বৃক্ষ রোপন উদ্বোধন করলেন সাবেক এমপি শাহজাহান চৌধুরী ২৪ জুন খুলছে হোটেল মোটেল ও গেস্ট হাউস, বন্ধ থাকবে পর্যটন কেন্দ্র কলাতলীতে কউকের অভিযানে ভেঙ্গে দেয়া হলো ৩টি অবৈধ স্থাপনা চকরিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ প্রভাষকের মৃত্যু পার্বত্য বান্দরবানকে সম্প্রীতির মডেল জেলা হিসেবে রূপান্তরিত করতে হবে: পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর বিচারের আশায় ৬ মাস ধরে গ্রাম আদালতে আসে আর যায় পেকুয়ার বাদশা উখিয়ায় বিশ্ব শরনার্থী দিবস উদযাপন ; রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন যেন দ্রুত নিশ্চিত করা হয় চকরিয়ায় বাগানের ফলনকৃত ৪৫০ পেঁপে গাছ নির্বিচারে কেটে সাবাড়, আটক ১ চকরিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার জমিসহ নতুন বাড়ি পেলেন তিনশত দরিদ্র ভুমিহীন পরিবার
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৩:৫২ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
কক্সবাজার পোস্টে আপনাকে স্বাগতম, আমাদের সাথে থাকুন,কক্সবাজারকে জানুন......

নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে স্থানীয় যুবককে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবী-পুলিশী অভিযানে উদ্ধার : আটক-২

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: মে ৬, ২০১৮ ৯:১৯ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: মে ৬, ২০১৮ ৯:১৯ পূর্বাহ্ণ

হুমায়ুন রশিদ, টেকনাফ ::
টেকনাফে নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে স্থানীয় এক যুবককে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবীর ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে শালবন সংলগ্ন এক মাঝির আস্তানা থেকে উদ্ধার করেছে। এই ঘটনায় আশ্রয় দেওয়া রোহিঙ্গা সহোদরকে আটক করেছে।
জানা যায়, ৬মে বাদে জোহর উপজেলার হ্নীলা জাদিমোরাস্থ পশ্চিম নয়াপাড়ার হোছন আহমদের পুত্র ছৈয়দ আহমদ (২২) কে রেজিষ্টার্ড রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নুর আলম, জকির, অজি উল্লাহ, জকির আহমদসহ আরো ৬/৭জনকে বাড়ির সামনে থেকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে শাল বাগানের ডি-ব্লকের মৃত লোকমান হাকিমের পুত্র আবুল কালাম মাঝির আস্তানায় নিয়ে ব্যাপক মারধর করে ৪লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে। স্থানীয় লোকজন বিষয়টি নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্প পুলিশের আইসিকে অবহিত করেন। আইসি মোঃ কবির হোসেন জনসাধারণ ও সর্ঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে অভিযান চালিয়ে অপহৃত ছৈয়দ আহমদকে উদ্ধার করে মৃত লোকমান হাকিমের পুত্র আবুল কালাম মাঝি ও মোহাম্মদ হোসেনকে আটক করে নিয়ে আসে। অপহৃতের পিতা এই ব্যাপারে অভিযোগ দায়ের করলে আইনী পদক্ষেপ নেওয়ার হবে বলে জানানো হলেও রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের ভয়ে মুখ খুলছেনা। স্থানীয় ইউপি মেম্বার মোহাম্মদ আলী এক ব্যক্তি অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবীর সত্যতা স্বীকার করেন।
টেকনাফ মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ রনজিত কুমার বড়ুয়া,এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।
এদিকে স্বশস্ত্র আরসা গ্রুপের সদস্য, আনসার কমান্ডার হত্যা মামলার জামিনে আসা আসামী নুরুল আলমের নেতৃত্বে সম্প্রতি একাধিক অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের ঘটনা ঘটেছে। এই নুরুল আলমের স্বশস্ত্র গ্রুপের কাছে স্থানীয় জনসাধারণ ও রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা পর্যন্ত অসহায় বলে জানা গেছে।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::

সর্বশেষ