তারিখ: বুধবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং, ১০ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share:

আব্দুর রশিদ, নাইক্ষ্যংছড়ি :
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ৪ ইউনিয়ন তামাক চাষের জন্য বিখ্যাত। তবে বর্তমানে উপজেলার সদর, বাইশারী, দোছড়ি, সোনাইছড়িসহ এসব এলাকার কৃষকরা তামাকের বিকল্প চাষে আশার আলো দেখছে বাঁকখালী,আশারতলিসহ অনেক এলাকার কৃষক।
সোনাইছড়ি ইউনিয়নে হেডম্যান পাড়ার কৃষক- উছাইমং মার্মার সাথে কথা বলে জানা যায় , বিগত বছর তামাক চাষ করে- বিঘা প্রতি ১৭ হাজার টাকা পেয়েছিল কিন্তু বর্তমানে একই জমিতে পেঁপে চাষ করে বিঘা প্রতি ৪০ হাজার টাকা পর্যন্ত লাভবান হওয়ার আশা করছেন এই উপজাতী কৃষক।
সোনাইছড়িতে দায়িত্বরত উপ- সহকারী কৃষি কর্মকর্তা পেঁপে চাষীদের সার্বিক প্রশিক্ষণ ও বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন, ফলে তামাক চাষের পরিবর্তে দিন দিন পেঁপে চাষের প্রতি কৃষকের আগ্রহ সৃষ্টি হচ্ছে। অপর দিকে বাঁকখালী কৃষি উপসহকরি জানান, আমার ব্লকের কৃষকরা লেবুচাষ ও ভুট্টা লাভজনক হওয়ায় এলাকার কৃষকরা সেদিকে ঝোকছে।
উপজাতী কৃষক উছাইমং মার্মার সাথে কথা বলে জানা গেছে, তার কাছ থেকে দেখে থোয়াইহ্লারী মার্মা, ক্যওয়াং মার্মা, লোয়াইছা মার্মা ও চাইহ্লাথোয়াই মার্মা পেঁপে চাষ শুরু করেছেন। এছাড়াও হেডম্যান পাড়ায় পূর্বে প্রচুর তামাক চাষ হতো, বর্তমানে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারদের সহযোগীতায় তামাকের পরিবর্তে পেঁপে, লেবু, মাল্টা, কমলা, আম, পেয়ারা,জলপাই-সহ বিভিন্ন সব্জি উৎপাদিত হচ্ছে বিধায় কৃষক প্রচুর লাভবান হচ্ছে।

Share:

আপনার মতামত প্রদান করুন ::