মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩:০৩ পূর্বাহ্ন

দৈনিক দেশ বার্তার প্রকাশক হাজী জসীম উদ্দীনের নামে অপপ্রচারে দাগী আসামী আবুল হোসেন

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: জুলাই ৬, ২০১৮ ৭:৪০ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: জুলাই ৬, ২০১৮ ৭:৪০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক::
চট্টগ্রামে সুনাম ধন্য অনলাইন নিউজ দৈনিক দেশ বার্তার প্রকাশক হাজী জসীম উদ্দীনের নামে বিভিন্ন সময় পটিয়া থানার বাসিন্দা আবুল হোসেন,পিতা জেবল হোসেন,গ্রাম,মোহাম্মাদ নগর থানা পটিয়া। জেলা চট্রগাম।এই ঠিকানায় আবুল হোসেন নামের ছেলেটি এলাকার একজন টক বাটপার নামে পরিচিত।সে বিভিন্ন সময় কখনো আনছার,কখনো পুলিশ,কখনো RB পরিচয় আবার কখনো সাংবাদিক পরিচয়ে নিরহ মানুষ এর কাছে মামলার ভয় দেখিয়ে বিপুল টাকা হাতিয়ে নেন।তার অত্যাচার অতিষ্ট হয়ে কুলাগাঁও ইউনিয়ের সাবেক মেম্বার শরীফ পটিয়া থানায় চাদাঁবাজীর মামলা রুজু করেন। কুলাগাঁও ইউনিয়নের একটি হিন্দু পরিবার কে পথে বসিয়েছে।ঐ মহিলা তত কালীন এস আই কামাল কে অভিয়োগ করলে। আবুল হোসেন কে থানায় ধরে এনে গাছের সাথে বেধে মারধর করে মুছলেকা দিয়ে ছুটে আসে আর জীবনে কাহারো সাথে প্রতারনা করবেনা বলে।এলাকাবাসী জানায় আবুল হোসেন একজন অশিক্ষিত মুর্ক লোক।তার পিতা একজন সহজ সরল লোক।কিন্তুু তার বাপ কে নদীর ধারা কুড়িয়ে পাই মৃত আনু মিয়া।তার পর থেকে লালন পালন করে।পালিত ছেলেকে বিয়ে করান। মৃত আনু মিয়া।ঐ পালিত ছেলের পুএ আবুল হোসেন।এলাকাবাসী আরো জানান।আবুল হোসেন কে খোজার জন্য তার ঘরে কয়েক বার পুলিশ আসলে তাকে না পেয়ে আমাদের কাছে প্রশাসন জানতে চাই আবুল হোসেন কি কাজ করে।কিন্তু কেন প্রশ্ন করলে পুলিশ জানাই।তার নামে কতোয়ালী থানায় ইয়াবা মামলা আছে। পরে শুনলাম নামে ঢাকায় একটি ৫৭ ধারা মামলাও আছে।এলাকাবাসী আরো জানাই আবুল হোসেন কে দিনের বেলায় দেখা যাই না রাতে বেলায় বাহির হয়।তার ঘরে বর্তমানে তৃতীয় নাম্বার বউ আছে।তার মা বাবা কে নাকি ঘর থেকে তাড়িয়ে দিয়ে নিজে ঘর দখল করে আছে,এবং কয়েক বার তার মা বাবা কে মারার পর উঠান বৈটক করে সমাজের মানুষ।প্রত্যক্ষ কিছু লোক জানান বেশী কিছু দিন ধরে আবুল হোসন এলাকার কিছু মানুষের নামে বেনামে অপপ্রচার আমরা যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেখি।কিন্তুু কিন্তু চরিএহীন প্রতারক এর সাথে কেউ কথা বলা না সম্মান রক্ষার জন্য।তিনি আরো জানান সে নাকি সাংবদিক। আসলে জনগনের মনে প্রশ্ন দেখা দেয় একজন বেশ কিছু মামলার ও ক্লাস ফাইব ফেল লোক কি ভাবে সাংবাদিকের কার্ড পাই বা কে দিলো তা প্রশাসন তদন্ত করা দরকার।অশিক্ষিত সাংবাদিক কি ভাবে এলাকা বা সমাজ ও দেশের কি মঙ্গল বয়ে আনবে।
প্রশাসনই বা কেন নিরভ ভুমিকা পালন করছে এলাকাবাসীর জানা নেই।আর এক পথচারী জানান আবুল হোসেন গ্রামে গ্রামে গিয়ে বলে সে অপরাধ বিচিএার সাংবাদিক ও দৈনিক আলোকিত পএিকার সংবাদিক বলে মানুষ কে ভয় ভীতি প্রদর্শন করে।এই দিকে চট্টগ্রামের সুনামধন্য অনলাইন নিউজ দৈনিক দেশ বার্তার প্রকাশক হাজী জসীম উদ্দীন এর ছোট ভাই নাজিম ঊদ্দীন। আবুল হোসেন এর বিভিন্ন ফেসবুক আইড়ি থেকে তার মেঝ ভাইয়ের নামে মিথ্যা অপ প্রচার ও মানহানি মুলক পোষ্ট দেখে ঢাকা পল্টন থানায় আবুলে র নামে ৫৭ ধারা মামলা করেন। ৫৭ ধারা মামলা করা পর থেকে আবুল আরো বেপরোয়া হয়ে কুরুচীপুর্ন। ব্যবহার ও ছবি দিয়ে পোষ্ট করতে থাকে।যা আইন বিরুদ্ধী। তাই বাংলাদেশ আইন বিভাগ ও পুলিশ কমিশনার RAB পটিয়া কাছে বীনিত অনুরোধ জানান ৫৭ ধারার বাদী ও দৈনিক দেশ বার্তার প্রকাশক ও চট্টগ্রাম অনলাইন প্রেস ক্লাবের সদস্য হাজী জসীম ঊদ্দীন। আসামী আবুল হোসেন কে আইনের আওতায় আনার জোর দাবী জানান।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::