শিরোনাম :
উখিয়া প্রেসক্লাব নির্বাচনের চুড়ান্ত প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ আলীকদমে শর্টবড়ি (চাঁদেরগাড়ী) মাইক্রো বাস মালিক সমবায় সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন ঝিলংজা ইউনিয়ন যুবলীগের ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠিত উখিয়ার আবদুর রহিম ইয়াবা নিয়ে র‍্যাবের হাতে আটক নাইট কোচে ডাকাতি: গ্রেপ্তারকৃত বাস চালক সহ তিনজনকে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন মহেশখালী থেকে ছিনতাই হওয়া মটরসাইকেল উদ্ধার : গ্রেফতার-১ টেকনাফে ১০হাজার ইয়াবা বড়িসহ আটক-১ কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে পরিবেশ, পর্যটন ও উন্নয়ন বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত সেন্টমার্টিনে কোস্টগার্ডের অভিযানে ইয়াবা ও গাজাসহ আটক ২ উৎসবমুখর পরিবেশে উখিয়া প্রেসক্লাবের নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র জমা
সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৫:৪৭ অপরাহ্ন

দিল্লির জয়রথ থামিয়ে আইপিএলের শীর্ষে মুম্বাই

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: অক্টোবর ১১, ২০২০ ১০:০৭ অপরাহ্ণ | সম্পাদনা: অক্টোবর ১১, ২০২০ ১০:০৭ অপরাহ্ণ

Photo of দিল্লির জয়রথ থামিয়ে আইপিএলের শীর্ষে মুম্বাই

[ad_1]

আবুধাবি, ১২ অক্টোবর- শেষ পর্যন্ত অভিজ্ঞতারই জয় হলো। দিল্লি ক্যাপিটালসের শীর্ষস্থান কেড়ে নিলেন রোহিত শর্মা অ্যান্ড কোং। তরুণ অধিনায়ক শ্রেয়াস আয়ার হেরে গেলেন অভিজ্ঞ রোহিত শর্মার কাছে। মূলতঃ দুই ব্যাটসম্যান কুইন্টন ডি কক এবং সুর্যকুমার যাদবের ব্যাটে ভর করে দিল্লি ক্যাপিটালসকে ৫ উইকেটে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে উঠে এলো মুম্বাই।

জয়ের জন্য মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে ১৬৩ রানের লক্ষ্য বেধে দিয়েছিল দিল্লি ক্যাপিটালস। ২ বল হাতে রেখেই এই লক্ষ্য পার হয়ে যায় বর্তমান চ্যাম্পিয়ন দলটি। সে সঙ্গে ৭ ম্যাচে ৫ জয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে রোহিত শর্মার দল। আর সমান সংখ্যক ম্যাচে একই জয় এবং সমান পয়েন্ট থাকলেও দিল্লি পিছিয়ে পড়েছে রান রেটে।

আরও পড়ুন: দুই তরুণের ব্যাটে নাজমুল একাদশের শুভ সূচনা

আবু ধাবির শেখ জায়েদ ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জয়ের জন্য ১৬৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই রোহিত শর্মার উইকেট হারিয়ে বসে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। ১২ বলে ৫ রান করে আউট হন রোহিত। এরপর কুইন্টন ডি কক আর সুর্যকুমার যাদব মিলে হাল ধরেন বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের।

যদিও দু’জনের জুটি আয়ু মাত্র ৪৬ রানের। এর মধ্যে ৩৬ বলে ৫৩ রান করে আউট হয়ে যান ডি কক। ৪টি বাউন্ডারির সঙ্গে ৩টি ছক্কার মার মারেন তিনি। প্রোটিয়া এই ব্যাটসম্যান আউট হওয়ার পর সুর্যকুমার যাদব আর ইশান কিশান মিলে দলের জয়ের মূল কাজটি সেরে ফেলেন। দু’জন মিলে ৫৩ রানের জুটি গড়লেও ১৩০ রান পর্যন্ত দলকে নিয়ে যান।

এ সময় সুর্যকুমার যাদব ৩২ বলে ৫৩ রান করে আউট হন। ৬টি বাউন্ডারির সঙ্গে ছক্কা মারেন ১টি। ইশান কিশান ১৫ বল খেলে করেন ২৮ রান। ২টি করে বাউন্ডারি এবং ছক্কা মারেন তিনি। শেষে কাইরন পোলার্ড ১৪ বলে অপরাজিত ১১ এবং হার্দিক পান্ডিয়া ৭ বলে ১২ রান করে দলকে জয় উপহার দেন।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ১২ অক্টোবর



[ad_2]

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::