তারিখ: মঙ্গলবার, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং, ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ঢাকার ধামরাইয়ে ডেকে নিয়ে বন্ধুসহ প্রেমিকাকে গণধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষণের শিকার স্থানীয় একটি স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী।এ ঘটনায় মঙ্গলবার ছাত্রীর বাবা ধামরাই থানায় চারজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। তবে ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। ওই দিনই ধর্ষিতাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান ষ্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ডাক্তারি পরীক্ষা করানো হয়েছে।

ভুক্তভোগীর পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, শনিবার সকালে স্কুলে যাওয়ার উদ্দেশে ওই ছাত্রী বাড়ি থেকে বের হয়। ওইদিন আর বাড়ি ফেরেনি। পরদিন সকালে বাড়িতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে বিস্তারিত ঘটনা তার মা ও নানীর কাছে বলে। আলামিন নামে এক ছেলে তাকে ভালোবাসে। আলামিন তাকে ডেকে নিয়ে পৌরসভার পাঠানটোলা মহল্লার একটি তিনতলা ভবনের ছাদে উঠায়। এরপর তার তিন বন্ধু নিয়ল,পান্থসহ অজ্ঞাতনামা একজন হাত-পা বেঁধে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের কথা কাউকে বললে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে রোববার সকালে পৌর শহরের কুমড়াইল মহল্লার বাসার কাছে নামিয়ে দেয়। স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়ার পর সোমবার রাতে থানায় মামলা করতে আসে ধর্ষিতার পরিবার। ওই রাতে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

এ বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ধামরাই থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আশিকুজ্জামান জানান, আসামিদের আটকে অভিযান অব্যাহত আছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আপনার মতামত প্রদান করুন ::