সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৭:১৪ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
কক্সবাজার পোস্টে আপনাকে স্বাগতম, আমাদের সাথে থাকুন,কক্সবাজারকে জানুন......

ডুলাহাজারায় জামাল হোছাইনকে নৌকার মাঝি চায় তৃণমূল নেতাকর্মীরা

চকরিয়া প্রতিনিধি::

প্রকাশ: ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২১ ৯:৪৯ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২১ ৯:৪৯ পূর্বাহ্ণ

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে সাধারণ মানুষের মাঝে জল্পনাকল্পনার অন্ত নেই। নির্বাচনের দিনক্ষণ আগে-পিছে করার মনোভাব পোষণ করলেও থেমে নেই মেম্বার চেয়ারম্যান প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা।

কক্সবাজার জেলার চকরিয়ায় অন্যতম বৃহত্তর একটি ইউনিয়ন ডুলাহাজারা। আওয়ামিলীগ দলের সুখের সময় নয়, বিগত দুঃখের সময়ে এ-ই ইউনিয়নের নেতাকর্মীদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। যার ফলে ডুলাহাজারা ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সুনাম অক্ষুণ্ণ রয়েছে জেলা, উপজেলা ও কেন্দ্রীয় পর্যায়ে।

অপরদিকে আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে ঘিরে ক্ষোভ ও দুঃখ প্রকাশ করছে এখানকার তৃণমূল নেতাকর্মীরা। তাদের অনেকে জানিয়েছে, দলীয় প্রতীক ‘নৌকা’ পাবেন মাত্র একজনে। যাচাই-বাছাই করে দলীয় সিদ্ধান্তে এটি যে-কোন ত্যাগী নেতাকে প্রদান করবে। কিন্তু বর্তমানে ডুলাহাজারা ইউনিয়নে নৌকা প্রত্যাশী অর্ধ ডজন। যাদের দলীয় ও সামাজিক কোন প্রকার ভূমিকা নেই তারাও নৌকা পেতে উঠেপড়ে লাগছে।

আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা বিশ্বাস করে, নৌকা প্রতীক প্রদানের ক্ষেত্রে নীতি আদর্শ বজায় রেখে ত্যাগী নেতাকে যথাযথ মূল্যায়ন করবে। সে সুবাদে ডুলাহাজারা ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ ও ওয়ার্ড নেতাকর্মীরা আলহাজ্ব জামাল হোছাইন অর্থাৎ তাদের সভাপতিকে নৌকা প্রতীক প্রদানে লিখিত অনুরোধ জানিয়েছে। এই লিখিত আবেদন দলীয় ও সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরণ করা হয়।

আবেদনে জানা গেছে, তৎকালীন বিরােধী দলীয় নেত্রী থাকা অবস্থায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ১৯৮৫ ও ১৯৮৬ সালে পরপর ২ বার ডুলাহাজারায় শুভ পদচারণে ইউনিয়নবাসীকে ধন্য করেন। বর্তমান ডুলাহাজারা ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সভাপতি আলহাজ্ব জামাল হোছাইনের শ্রদ্ধেয় পিতা বীর মুক্তিযােদ্ধা শহীদ মরহুম মফজল আহম্মদ চেয়ারম্যানের বাড়ীতে কবর জিয়ারতে শুভাগমন করেন তিনি।

মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে জাতির জনকের ঘনিষ্ট সহচর আলহাজ্ব মফজল আহমদ দেশ স্বাধীনের লক্ষ্যে যুদ্ধে অংশগ্রহণ করতে সর্বসাধারণকে অনুপ্রাণিত করেন। তিনি বিজয় ছিনিয়ে আনতে মুক্তিযোদ্ধা সেক্টরে মূখ্য ভূমিকা পালন করেন মুক্তিকামী সহযােদ্ধাদের সাথে। দেশ স্বাধীনের পর সফল সেই বীর মুক্তিযুদ্ধাকে ডুলাহাজারা ইউনিয়নের জনগণ পরপর ৩ বার চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেন। জনগণের প্রিয় এই চেয়ারম্যানের নীতি আদর্শ ও অবদানের কথা এখনো তারা ভুলতে পারছে না।

ওনারই সুযােগ্য সন্তান ডুলাহাজারা ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সভাপতি আলহাজ্ব জামাল হােছাইনকে ‘নৌকা প্রতীক’ প্রদানে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরের কাছে জোর আবেদন জানায় তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::