শিরোনাম :
দেশের প্রতিটি সংগ্রামের সূতিকাগার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় ফেরি চলাচল বন্ধ মাথাপিছু বৈদেশিক ঋণ ২৩৪২৫ টাকা চকরিয়া সরকারি হাসপাতালে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে এই প্রথম প্রতিবন্ধীদের জন্য আলাদা কক্ষ বরাদ্দ পেকুয়া কবির আহমদ চৌধুরী বাজারে শেড নির্মাণ ক্ষতিগ্রস্ত দুইশত ব্যবসায়ীকে পুনর্বাসনের নিশ্চয়তা মহেশখালীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু সদর-রামুতে পানি সংকটে কৃষকদের হাহাকার, বাঁধ নির্মাণে নানা অনিয়ম দুদকের মামলায় সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর কারাগারে কক্সবাজার শহরে রেষ্টুরেন্টে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার প্রস্তুত, হাঁড়িসহ ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা কক্সবাজার সদর ইসলামাবাদে নোহার ধাক্কায় এক ভাই নিহত অপর ভাই আহত
শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী ২০২১, ১১:২২ পূর্বাহ্ন

টেকনাফে ৬টি সোনার বার ও মিয়ানমারের ৯৫০ কিয়াট মুদ্রা উদ্ধার

হেলাল উদ্দিন, টেকনাফ ::

প্রকাশ: নভেম্বর ৩০, ২০২০ ৯:২৪ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: নভেম্বর ৩০, ২০২০ ৯:২৪ পূর্বাহ্ণ

কক্সবাজারের টেকনাফের হোয়াইক্যংয়ে একটি বসত বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে ৬টি সোনার বার ও মিয়ানমারের ৯৫০ কিয়াট মুদ্রা উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা।

যাহার ওজন ৮৫ ভরি ০৬ আনা। বাজার মূল্য ৫৫ লাখ ৭৫ হাজার টাকা। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করতে পারেনি বিজিবি।

রোববার দুপুর একটার দিকে উপজেলার হোয়াইক্যং বিজিবির সীমান্ত চৌকি সংলগ্ন একটি বসতবাড়ি থেকে সোনার বারগুলো উদ্ধার করা হয়েছে।

এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ ২ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান।

তিনি বলেন, বিজিবি সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে, হোয়াইক্যং বিজিবির সীমান্ত চৌকি সংলগ্ন এলাকায় বসবাসকারী মৃত আব্দুল হাকিমের ছেলে মোহাম্মদ বাবুলের বসতবাড়ীতে সোনার বার ক্রয়-বিক্রয় হতে পারে।

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে হোয়াইক্যং সীমান্ত চৌকির কমান্ডার নায়েক সুবেদার মো বজলুর রহমানের নেতৃত্বে একটি টহলদল অভিযানে গেলে একজন সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে বাড়ীর সামনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে।

দূর থেকে বিজিবি’র টহলদলকে দেখে ওই ব্যক্তি পার্শ্ববর্তী পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। পরে বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে ৬টি সোনার বার , ১টি মোটরসাইকেল ও মিয়ানমারের নগদ ৯৫০ কিয়াট উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে।

এ ঘটনায় বাড়ির মালিক মোহাম্মদ বাবুল (৪০) ও দৌড়ে পালিয়ে যাওয়া মৃত পেটান আলীর ছেলে মোহাম্মদ জাফর (৩৫) কে পলাতক আসামী করে থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান বলেন, সরকারের কর/ শুল্ক ফাঁকি দিয়ে সোনার বার নিজ হেফাজতে রেখে চোরাচালানের অপরাধে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ও মিয়ানমারের নগদ কিয়াটসহ টেকনাফ মডেল থানায় সোপর্দ করা হয়েছে এবং উদ্ধার করা সোনার বারগুলো জেলা প্রশাসক কক্সবাজারের ট্রেজারী শাখায় জমার প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::