শিরোনাম ::
সামাজিক সংহতি ও শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত উখিয়ার রাজা পালং মাদ্রসা দাখিল পরীক্ষা কেন্দ্রে নানা অভিযোগ, তদন্ত কমিটি গঠিত মুক্তি কক্সবাজারের উদ্যোগে উখিয়ায় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত ফ্রেন্ডশিপের প্রশিক্ষণে চ্যাম্পিয়ন ভালুকিয়া পালং উচ্চ বিদ্যালয়ের নারী ফুটবল টিমকে সংবর্ধনা উখিয়ায় মাদক প্রতিরোধ ও অপরাধ দমনে কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত একসঙ্গে ৪ সন্তান জন্ম দিলেন মহেশখালীর এক গৃহবধূ! বান্দরবানের দুর্গম অঞ্চলে ঝরে পড়া শিশুদের জন্য উদ্বোধন শিশু প্রতিভা বিকাশ কেন্দ্রের বান্দরবান দুই শতাধিক প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উখিয়ায় পালস’র উদ্যোগে বিশ্ব শান্তি দিবস পালিত সীমান্তে গুলির শব্দ থামছে না
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:০৩ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..

টেকনাফে মূল্য তালিকা এলোমেলো, ৮টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: রবিবার, ৩ এপ্রিল, ২০২২

হেলাল উদ্দিন টেকনাফ::

এলোমেলোভাবে ছোলা, চিনি, পেঁয়াজ, আদা, তেল, মুড়ি ও খেজুরের মূল্যের তালিকা টাঙিয়ে দোকানে সাজিয়ে রাখা হয়েছে। তবে দোকানের কর্মচারী ও মালিকের মুখে বলার দামের সঙ্গে টাঙ্গানো মূল্য তালিকার কোনো ধরনের মিল না থাকায় মেসার্স মোহাম্মদ আলী স্টোরকে গুনতে হয়েছে ৫০ হাজার টাকার জরিমানা। ঠিক একইভাবে আরও সাতটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক কর্তৃপক্ষকে ৯৫ হাজার টাকা জরিমানা গুনতে হয়েছে।
আজ রোববার বেলা ১১টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত কক্সবাজারের টেকনাফ পৌরসভার বড় বাজার এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়েছে। এ অভিযানের নেতৃত্ব ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ এরফানুল হক চৌধুরী। তাকে সহযোগিতা করেন থানা পুলিশের একটি দল ।
উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ এরফানুল হক চৌধুরী বলেন, টেকনাফে রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্যের বাজার মূল্য নিয়ন্ত্রনে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ আইনে ৮টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে নিউ ভাই ভাই স্টোরকে ১০ হাজার, মেসার্স আব্দুল্লাহকে ১০ হাজার , নিপুন চৌধুরীকে ৫হাজার , মেসার্স জহিরুল স্টোরকে ১০হাজার, মেসার্স ইসমাইল স্টোরকে ১০হাজার, মেসার্স মোহাম্মদ আলী স্টোরকে ৫০হাজার, মেসার্স তাহের স্টোরকে ২০ হাজার ও মেসার্স সিরাজ স্টোরকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
তিনি বলেন, মূল্য তালিকা সংরক্ষণ না করা এবং পণ্যের অতিরিক্ত মূল্য নেওয়ার অভিযোগে এসব জরিমানা আদায় করা হয়েছে। এ অভিযান চলমান থাকবে।
কয়েকজন ক্রেতা বলেন, প্রায় প্রতিটি দোকানে নামে মাত্র একটি মূল্যের তালিকা টানানো হয়েছে। তালিকা সঙ্গে বেচাকেনা করার মালামালের অনেক পার্থক্য রয়েছে। অভিযান থেকে বাঁচার জন্য এই ধরনের মূল্য তালিকা টানানো হয়েছে।


আরো খবর: