শিরোনাম ::
উখিয়ায় মাদক প্রতিরোধ ও অপরাধ দমনে কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত একসঙ্গে ৪ সন্তান জন্ম দিলেন মহেশখালীর এক গৃহবধূ! বান্দরবানের দুর্গম অঞ্চলে ঝরে পড়া শিশুদের জন্য উদ্বোধন শিশু প্রতিভা বিকাশ কেন্দ্রের বান্দরবান দুই শতাধিক প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উখিয়ায় পালস’র উদ্যোগে বিশ্ব শান্তি দিবস পালিত সীমান্তে গুলির শব্দ থামছে না উখিয়ায় প্রশাসনের অভিযানে ৩টি ড্রেজার মেশিন ও ২টি বন্দুকসহ অস্ত্র উদ্ধার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আবারো খুন মুক্তি কক্সবাজার-এর উদ্যোগে ব্যবসায়ী ও উপকারভোগীদের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত পালস-এর উদ্যোগে “বর্ণবাদ-শান্তি ও সম্প্রীতির অন্তরায়” বিষয়ক বির্তক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:২৩ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..

টেকনাফে অপহরণকারী চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: মঙ্গলবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২১

কক্সবাজারের টেকনাফের দমদমিয়া এলাকা থেকে একাধিক মামলার পলাতক আসামি ও অপহরণকারী চক্রের সদস্য সহোদরকে গ্রেফতার করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) সদস্যরা।
মঙ্গলবার দুপুরে হ্নীলা ইউপি দমদমিয়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতাররা একই এলাকার বাসিন্দা নুর আলমের দুই ছেলে আব্দুল্লাহ ও আইয়াস রুবেল।

মঙ্গলবার রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ১৬ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) অধিনায়ক এসপি মোহাম্মদ তারিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জাদিমুড়া ক্যাম্পের এপিবিএন পুলিশের একটি দল দমদমিয়া নুর আলমের বসতঘরে অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় একাধিক মামলা পলাতক আসামি ও অপহরণকারী চক্রের সক্রিয় স্থানীয় সদস্য সহোদরকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

তিনি আরো বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে ধৃতরা জানান, তারা স্থানীয় এবং রোহিঙ্গাদের অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের জন্য সশস্ত্র পাহাড়ি রোহিঙ্গা ডাকাতদের হাতে তুলে দেন। তাদের বিরুদ্ধে টেকনাফ থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। গ্রেফতার সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এর আগে কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে ওয়ান শুটারগান অস্ত্রসহ নূর আলম নামে এক রোহিঙ্গা যুবককে আটক করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)। মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) সকালে ১৪ নম্বর ক্যাম্প হাকিমপাড়া নুর আলমের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেন ৮ এপিবিএন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) কামরান হোসেন।


আরো খবর: