বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০৮:০৯ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
কক্সবাজার পোস্টে আপনাকে স্বাগতম, আমাদের সাথে থাকুন,কক্সবাজারকে জানুন......

জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের কার্যক্রমকে ব্যাহত করার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ

বার্তা পরিবেশক::

প্রকাশ: ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২১ ১১:৫২ অপরাহ্ণ | সম্পাদনা: ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২১ ১১:৫২ অপরাহ্ণ

কক্সবাজার জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের কার্যক্রমকে ব্যাহত করার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ পাওয়া গেছে। মাদকের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ক্রীড়াঙ্গন থেকে
বহিস্কৃত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা কারবারি শাহজাহান আনছারির নেতৃত্বে ফুটবল এসোসিয়েশনের আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে নানা ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে।

এই ইয়াবা কারবারির নেতৃত্বে বিভিন্ন জায়গায় ডিএফএ-এর ভোটারদের নানা প্রলোভনে ডেকে নিয়ে গোপন বৈঠকও চলছে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে। এরই অংশ হিসেবে সম্প্রতি ইনানীর একটি জায়গায় এই ইয়াবা কারবারির নেতৃত্বে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সেই বৈঠকে অংশ নেয়া কুতুবদিয়া উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক বিমল জানান, তাকে অন্য কথা বলে সেই বৈঠকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। বৈঠকে শাহজান অানছারীও উপস্থিত ছিলেন। সেখানে বেশ কয়েকজনকে শপথ করানো হয়, ডিএফএ নির্বাচনে তাদের পক্ষে যেতে।

জানা গেছে-চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদীর যখন থেকে জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণ করে তখন থেকে
অদ্যাবদি পর্যন্ত জেলার ফুটবল ইতিহাসে বিভিন্ন কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে।

ইতোমধ্যে সাঈদীর নেতৃত্বে কক্সবাজার জেলা ফুটবল দল দু’বার বিভাগীয় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। এছাড়াও প্রথমবারের মত বাংলাদেশ গেমস্-এ খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে জেলা ফুটবল টীম। এসব ছাড়াও জাতীয় ফুটবল দলে সাঈদীর কারণেই আজ স্থান করে নিয়েছে জিকু, ইব্রাহিম , সবুজ ও সুশান্তদের মত তারকা খেলোয়ারেরা। তাছাড়া জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতি ফজলুল করিম সাঈদীর নেতৃত্বে ফুটবলে উন্নয়ন নানা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। তাই আগামী দিনেও ফজলুল করিম সাঈদীকে আবারো ডিএফএ-এর সভাপতি হিসেবে দেখতে চাই তৃণমুলের খেলোয়াড়, ক্রীড়া সংগঠক থেকে শুরু করে ক্রীড়ামোদিরা। কক্সবাজার জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য খালেদ আজম বিপ্লব জানান-ফজলুল করিম সাঈদীর নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে ফুটবল উন্নয়নের কার্যক্রম। তিনি জানান-২ বার জেলা লীগ করার জন্য দলবদল করা হয়েছিল। কিন্তু ইচ্ছাকৃত ভাবে কিছু দল না আসায় লীগ
অনুষ্ঠিত হয়নি।

তিনি বলেন-আমরা ক্রীড়াঙ্গনকে মাদকমুক্ত দেখতে চাই।
সত্যিকারের ক্রীড়া বিশেষ করে ফুটবলের উন্নয়নে যারা কাজ করবে তাদের আগামী দিনে ডিএফএ-এর নেতৃত্বে দেখতে চাই। এতে ফজলুল করিম সাঈদীর বিকল্প নেই।
অন্যদিকে বাংলাদেশ গেমস্-এ অংশ নেয়া জেলা ফুটবল দলের অধিনায়ক জাহাঙ্গীর আলম বলেন-বাংলাদেশ গেমস্-এ খেলতে পারা আমাদের জন্য অত্যন্ত গৌরবের।
সেজন্য ডিএফএ-এর সভাপতিসহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::