শিরোনাম ::
উখিয়ায় মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা অনুষ্ঠিত সামাজিক সংহতি ও শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত উখিয়ার রাজা পালং মাদ্রসা দাখিল পরীক্ষা কেন্দ্রে নানা অভিযোগ, তদন্ত কমিটি গঠিত মুক্তি কক্সবাজারের উদ্যোগে উখিয়ায় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত ফ্রেন্ডশিপের প্রশিক্ষণে চ্যাম্পিয়ন ভালুকিয়া পালং উচ্চ বিদ্যালয়ের নারী ফুটবল টিমকে সংবর্ধনা উখিয়ায় মাদক প্রতিরোধ ও অপরাধ দমনে কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত একসঙ্গে ৪ সন্তান জন্ম দিলেন মহেশখালীর এক গৃহবধূ! বান্দরবানের দুর্গম অঞ্চলে ঝরে পড়া শিশুদের জন্য উদ্বোধন শিশু প্রতিভা বিকাশ কেন্দ্রের বান্দরবান দুই শতাধিক প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উখিয়ায় পালস’র উদ্যোগে বিশ্ব শান্তি দিবস পালিত
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৯:০৯ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..

ছাত্রীকে উত্যক্ত—ছুরি চালিয়ে হাতুড়িপেটা করা হলো প্রতিবাদী প্রধান শিক্ষককে

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: শনিবার, ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২২

চকরিয়ায় ইভ টিজিংয়ে বাধা দেওয়ায় স্কুলের প্রধান শিক্ষককে ছুরিকাঘাত ও হাতুড়িপেটা করেছে বখাটের দল।

শুক্রবার (৪ ফেব্রুয়ারি) রাত ৯টায় উপজেলার চিরিঙ্গা ইউনিয়নের চরণদ্বীপ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

হামলায় গুরুতর আহত শিক্ষকের নাম মো. সালেহ উদ্দিন (৪০)। তিনি চরণদ্বীপ উপকূলীয় ভূমিহীন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং একই ইউনিয়নের মৃত হাজী মৌলানা হাবিবুর রহমানের ছেলে।

আহতের ভাই মো.শরীফুল ইসলাম জানান, বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার সময় নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে প্রতিনিয়ত উত্যক্ত করত স্থানীয় আবদুল হাফেজের ছেলে ইব্রাহিম খলিলসহ আরও ৪-৫ জন বখাটে। এ নিয়ে ইতোমধ্যে বেশ কয়েববার বিচারও হয়। এক সপ্তাহ আগে একই ঘটনা ঘটলে আবারও বিচার হয়। বিচারে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পায় বখাটে ইব্রাহিম ও খলিল।

এ ঘটনার জের ধরে শুক্রবার রাত ৯টার দিকে মো. সালেহ উদ্দিন স্থানীয় ফুলকাটা সড়কের মাথায় পৌঁছলে বখাটে ইব্রাহিম ও খলিলের নেতৃত্বে ৪-৫ জন বখাটে অতর্কিত তার ওপর হামলা চালায়। বখাটেরা তাঁকে ছুরিকাঘাত ও হাতুড়িপেটা করে। এ সময় সালেহ উদ্দিনের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে বখাটেরা পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ বিষয়ে জানতে জানতে চাইলে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মু. ওসমান গণি আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। তবে এ ঘটনায় কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। এরপরও শিক্ষকের ওপর হামলাকারীদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে।


আরো খবর: