তারিখ: বুধবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং, ১০ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Share:

নরেন্দ্র মোদি সরকারের পাস করা উচ্চবর্ণের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণের বিলকে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে যাচ্ছে। রাষ্ট্রপতির সইয়ের আগেই সংসদে পাস হওয়া এ বিলের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন জনস্বার্থে মামলাটি দায়ের করেছে। বিলটি খোদ সংবিধানের অন্তত দুইটি ‘মূলনীতির’ লঙ্ঘন ও শীর্ষ আদালতের একটি রায়ের পরিপন্থী বলেও দাবি জানিয়েছে তারা।

এর আগে মঙ্গলবার লোকসভা এবং পরে বুধবার রাজ্যসভায় সংরক্ষণ সংক্রান্ত ওই বিল পাস হয়েছে। আর পরের দিনই তাকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিমকোর্টে জনস্বার্থে মামলা দায়ের করল ‘ইয়ুথ ফর কোয়ালিটি’ নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

সাধারণ শ্রেণীর আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া অংশের জন্য চাকরি ও শিক্ষা ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ সংরক্ষণের বিল লোকসভায় পাস হয় মঙ্গলবার। তারপর বুধবার ধ্বনি ভোটে পাস হয়ে যায় রাজ্যসভায়ও।

ওই সংগঠনের আইনজীবীদের যুক্তি, সুপ্রিমকোর্টই একটি মামলায় রায় দিয়েছিল, সংরক্ষণের জন্য শুধু আর্থিক অবস্থা একমাত্র মাপকাঠি হতে পারে না। ভারতীয় সংবিধানেও সে কথা উল্লেখ করা হয়েছে। আবার শীর্ষ আদালত অন্য একটি মামলায় রায় দেয়, সব শ্রেণি মিলিয়ে মোট সংরক্ষণ ৫০ শতাংশের বেশি হবে না। নতুন সংরক্ষণ বিল এই দুই রায়েরই বিরোধী। এ রায়ের ফলে সংরক্ষণ সংক্রান্ত সাংবিধানিক কাঠামোই ভেঙে পড়বে বলেও দাবি করেছেন মামলাকারীরা।

ভোটের আগে কেন এই বিল আনা হল, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে উভয় কক্ষেই হট্টগোল করেন বিরোধী সংসদ সদস্যরা। এবার রাষ্ট্রপতি সই করলেই সেই বিল আইনে পরিণত হবে।

Share:

আপনার মতামত প্রদান করুন ::