তারিখ: বুধবার, ১৬ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং, ১লা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম

Share:

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া::

কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা বলেছেন, আওয়ামীলীগের তৃণমুলের নেতৃত্বকে ঢেলে সাজাতে হবে। তৃণমুলের নেতাকর্মীরাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বার বার ক্ষমতায় এনেছেন। দলের যে কোন দূর্যোগ মুর্হুতে ত্যাগী নেতাকর্মীরা ভূমিকা রাখেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলকে নতুন করে সাজাতে চান। ইতোমধ্যে কেন্দ্রীয় সম্মেলনের তারিখ চুড়ান্ত করেছেন। আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে মেয়াদর্ত্তেীন সকল কমিটির সম্মেলন শেষ করতে হবে। গতকাল বুধবার ৯ অক্টোবর বিকালে ফাঁশিয়াখালী এটিএন পার্ক মিলনায়তনে চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে বিশেষ বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
ওয়ার্ড সম্মেলন নিয়ে এক অভিযোগের প্রেক্ষিতে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সিরাজুল মোস্তফা বলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে যে সব ওয়ার্ড সম্মেলন সম্পন্ন হয়ে সে গুলো কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ ও জেলা আওয়ামীলীগের নির্দেশে হয়েছে। ওয়ার্ড সম্মেলনে কোন ধরণের সমস্যা বা অভিযোগ থাকলে সেগুলো উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ বসে সমাধান করবে। যে সব ওয়ার্ডের সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে, সেগুলো গৃহিত হয়েছে বলে জানান তিনি।
চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কক্সবাজার-১ আসনের সাংসদ আলহাজ জাফর আলমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীর স ালনায় অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান। সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল হক মুকুল, এডভোকেট রনজিত বডুয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুুবুর রহমান, বন ও পরিবেশ সম্পাদক লায়ন কমরুউদ্দিন আহমদ, শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক খালেদ মাহমুদ মিথুন, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ইউনুছ বাঙ্গালী, সাবেক সহ-সভাপতি শফিকুল কাদের শফি, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মো.নুরুল আবছার, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এটিএম জিয়া উদ্দিন চৌধুরী জিয়া, আমিনুর রশিদ দুলাল ও মিজানুর রহমান, চকরিয়া উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন হক জেসি চৌধুরী।
সভায় প্রধান বক্তা কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান বলেন, আওয়ামীলীগের কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড সম্মেলনে বিএনপি-জামায়াতের কোন লোক আসতে পারবে না। তৃনমুল থেকে বিষয়টি বেশি নজর রাখতে হবে। পাশাপাশি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুদ্ধি অভিযানের আলোকে কোন ইয়াবা ব্যবসায়ি, অপকর্মে জড়িত এবং দখলবাজ লোককে দলের কোন দায়িত্ব বা যোগদান করা যাবে না। আগামীতে ইউনিয়ন সম্মেলনে জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দকে অবশ্য দাওয়াত দিতে হবে।
চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভায় আরো বক্তব্য দেন চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক ছাত্রনেতা ছরওয়ার আলম, সহ-সভাপতি চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ ফজলুল করিম সাঈদী, সহ-সভাপতি মোক্তার আহমদ চৌধুরী, বাবু এমআর চৌধুরী, ছৈয়দ আলম কশিশনার, মোহাম্মদ মুছা, চকরিয়া কলেজের অধ্যক্ষ একেএম গিয়াস উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম, যুগ্ম সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা জামাল উদ্দিন জয়নাল, শাহনেওয়াজ তালুকদার, জেলা পরিষদের সদস্য ও বমুবিলছড়ি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপক সোলতান আহমদ,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাকারা ইউপি চেয়ারম্যান শওকত ওসমান, সাংবাদিক মিজবাউল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক আবু মুছা দুবাই, দপ্তর সম্পাদক মাষ্টার আবদুল জলিল, ধর্ম সম্পাদক ডা.মীর আহমদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য রোস্তম শাহরিয়ার, অধ্যাপক একেএম সাহাবুদ্দিন।
সভায় তৃনমুল থেকে বক্তব্য দেন খুটাখালী আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপক বশির আহমদ, সাধারণ সম্পাদক বেলাল আজাদ, ডুলাহাজারা আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী জামাল হোছাইন, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল এহেছান, ফাসিয়াখালী আওয়ামীলীগের সভাপতি মেম্বার সাহাব উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আবছার, লক্ষ্যারচর আওয়ামীলীগের সভাপতি রেজাউল করিম সেলিম, সাধারণ সম্পাদক খ.ম বুলেট, কৈয়ারবিল আওয়ামীলীগের সভাপতি ফিরোজ আহমদ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান হানু, বরইতলী আওয়ামীলীগের সভাপতি মাস্টার বেলাল আহমদ, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম, হারবাং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মেরাজ উদ্দিন মিরাজ, কাকারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজেম উদ্দিন, চিরিঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ জাফর আলম সিআইপি।
বক্তব্য রাখেন চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শহীদুল ইসলাম শহীদ, সাধারণ সম্পাদক কাউছার উদ্দিন কছির, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি শওকত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক বাবলা দেবনাথ, পৌরসভা আওয়ামীলীগ নেতা মিফতাব উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মামুন, চকরিয়া পৌরসভা যুবলীগের সভাপতি হাসানগীর হোছাইন, চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ মারুফ, সাধারণ সম্পাদক ভারপ্রাপ্ত আকিত হোসেন সাজিব, চকরিয়া পৌরসভা শ্রমিকলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন ধুলু, চকরিয়া পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা পারভেজ। এছাড়াও উপজেলা আওয়ামীলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের সিনিয়র বৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন এবং ১১টি ইউনিয়নের সভাপতি বক্তব্য রাখেন।
বর্ধিত সভায় সভাপতির বক্তব্যে চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম এমপি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য উত্তরসুরী দেশরত্ম শেখ হাসিনার দক্ষ নেত্বত্বে চকরিয়া-পেকুয়া মাতামুহুরী উপজেলা আওয়ামীলীগের সকলস্থরের নেতাকর্মী অবিচল রয়েছে। সংগঠনের কার্যক্রমে গতিশীলতা আনতে নেতাকর্মীরা এক এবং অভিন্ন।
এমপি জাফর আলম বলেন, আওয়ামীলীগের ভেতর কোন ধরণের বিভেদ নেই, তবে নেতাকর্মীদের মাঝে মতানেক্য থাকতে পারে, তা আলোচনা টেবিলে সমাধান করা সম্ভব। তাই সবাইকে সকল ধরণের ভেদাভেদ পরিহার করে দলের জন্য নিবেদিতভাবে কাজ করতে হবে।

Share:
error: কপি করা নিষেধ !!