বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন

চকরিয়ায় বদরখালী জেনারেল হাসপাতালে ভুল চিকিৎসার দায়ে থানায় অভিযোগ

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: এপ্রিল ১৬, ২০১৯ ৪:৫০ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: এপ্রিল ১৬, ২০১৯ ৪:৫০ পূর্বাহ্ণ

জিয়াউল হক জিয়া,চকরিয়া::

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার নিবন্ধন বিহীন বদরখালী জেনারেল হাসপাতালে গত ৯ এপ্রিল শাহেনা আক্তার (৪২) নামের রোগীকে ভুল চিকিৎসা ও ভুল ঔষুধ দিয়ে আরো বেশী মুমূর্ষ করার দায়ে চকরিয়া থানায় ২ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। যার এস.ডি.আর মামলা নং-৮০৬/১৯ইং।

জানা যায়,রোগী শাহেনা আক্তার (৪২) মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর ইউপির ৫নং ওয়ার্ডের পশ্চিম পাড়ার গ্রামের মোঃ আলীর স্ত্রী। থানায় অভিযোগটি দায়ের করেছেনমুমূর্ষ রোগীর বড় ভাই নুরুল আবছার। তিনি বদরখালী ইউপির ১নং বক্লের উত্তর নতুন ঘোনার বাসিন্দা মরহুম এমদাদুল হকের পুত্র।

অভিযুক্ত ব্যক্তিরা হলেন, হাসপাতালের ব্যবস্হাপনা পরিচালক কাইছার হামিদ (৪৫) ও ডাঃ ফারহা দিবা (৩৫)।

থানায় দায়েরকৃত অভিযোগে জানা যায়, গত ৯এপ্রিল রোগী শাহেনা আক্তার (৪২) শারীরিক অসুস্হতা ও সামান্য পেট ব্যথার কারণে বদরখালী জেনারেল হাসপাতালে ডাঃ ফারহা দিবার কাছে চিকিৎসার জন্য যায়। ডাঃ ফারহা দিবা ব্যবস্হাপত্রে ১০টি ঔষুধ ও ৬টি টেষ্ট বা পরীক্ষা দেন। চিকিৎসার শেষে হাসপাতালের ভিতরে থাকা ফার্মেসীর লোকরা ব্যবস্হাপত্র অনুযায়ী সঠিক ঔষুধ না দিয়ে ভুল ঔষুধ দেয়।

উক্ত ঔষুধ খাওয়ার পর রোগীর সারা শরীর ফুলে আরো বেশী অসুস্থ হয়ে পড়ে। এমতাবস্হায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে উপরোক্ত অভিযুক্ত ব্যাক্তিরা চট্রগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে রেফার করে।

তারপর আমরা মুমূর্ষ রোগী শাহেনাকে চমক হাসপাতালে ভর্তি করি। বর্তমানে চিকিৎসাধীন অবস্হায় থাকলেও রোগী শারীরিক অবস্হা আশংকাজনক। যেকোন সময় মৃত্যু বরণ করা সম্ভবনা রয়েছে। বিধায় নিবন্ধন বিহীন বদরখালীর জেলারেল হাসপাতালের ডাক্তার ও কতৃপক্ষের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্হা গ্রহনের জন্য অভিযোগ দায়ের করা হয়।

এ বিষয়ে প্রতিবেদক নিজেই হাসপাতালে গিয়ে জানতে চাইলে ব্যবস্হাপনা পরিচালকে না পেয়ে তাহার নাম্বারে প্রায় ৩০ বারের মত ফোন দিলেও ফোন রিসিভ করেননি।

পরে কর্মরত রিসেপশনে দায়িত্বরত ব্যক্তি থেকে ডাক্তারের নাম্বার চাইলে নাম্বার নেই বলে জবাব দেয়।

কক্সবাজার সিভিল সার্জন মোঃ আব্দুল মতিনের সাথে মুঠোফোনে এই বিষয়ে কথা বলতে চাইলে, তিনি কোন কথা শুনেই সরাসরি অফিসে গিয়ে কথা বলার জন্য বলে লাইন কেটে দেন।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::