সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ১২:২৮ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
কক্সবাজার পোস্টে আপনাকে স্বাগতম, আমাদের সাথে থাকুন,কক্সবাজারকে জানুন......

চকরিয়ায় করোনায় স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে মাঠে দুই নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট, ১৮ জনকে জরিমানা

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া::

প্রকাশ: এপ্রিল ৪, ২০২১ ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: এপ্রিল ৪, ২০২১ ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ

করোনা দ্বিতীয় ঢেউর প্রকোপ থেকে চকরিয়া উপজেলার ১৮ ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা জনপদের প্রায় ৬ লাখ মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতে প্রতিদিনই অভিযান চালাচ্ছেন দুইজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের সমন্বয়ে গঠিত ভ্রাম্যমান আদালত।

করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে ও স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের অংশহিসেবে রোববার (৪ এপ্রিল) দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত চকরিয়া পৌর শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে ও বিপনী বিতানসমুহে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান পরিচালনা করেন।

এসময় স্বাস্থ্যবিধি না মানায় এবং মাস্ক ব্যবহার না করায় ১৮ জনকে ৮টি মামলায় ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তানভীর হোসেন। অভিযানের সময় থানা পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসনের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

একইদন চকরিয়া পৌরশহরের বিভিন্ন পয়েন্টে অভিযান চালিয়েছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সৈয়দ সামসুল তাবরীজের আদালত।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তানভীর হোসেন বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতির দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশব্যাপী সংক্রমণের প্রকোপ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের হার রোধকল্পে সরকার ইতোমধ্যে বিভিন্ন নির্দেশনা জারি করেছে। সেই নির্দেশনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে চকরিয়া পৌর সদরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ সময় স্বাস্থ্যবিধি না মানা এবং মাস্ক ব্যবহার না করায় ১৮ জনকে ৮টি মামলায় ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আগামীতেও এ অভিযান অব্যাহত থাকবে জানিয়ে সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য অনুরোধ জানান ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তানভীর হোসেন।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::