শিরোনাম :
রোহিঙ্গা মহিলারা প্রতিভা বিকাশের সুযোগ পাচ্ছে সড়ক-মহাসড়কে সকল ধরনের অবৈধ চাঁদাবাজী রুখতে হবে- শাহজাহান খাঁন এমপি টেকনাফ শাহপরীর দ্বীপ খেলার মাঠ অবৈধ দখল মুক্ত করল সহকারী কমিশনার কক্সবাজার জেলায় পাঁচ বছরে মানুষের আক্রমণে ২১টি হাতির মৃত্যূ কক্সবাজারে জলবায়ু উদ্বাস্তু ও বিমানবন্দর সম্প্রসারণে আরও একটি আশ্রয়ণ’ প্রকল্প : ভূমিহীন ৩,৮০৮ পরিবার পাবে ১১৯টি ভবন চকরিয়ায় মাতামুহুরী নদীর তীরে পলিথিন মোড়ানো শিশুর মরদেহ উদ্ধার ধরে নিয়ে যাওয়া ৯ বাংলাদেশী জেলেকে বিজিবি’র কাছে হস্তান্তর করল বিজিপি কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের ৩ সদস্য নিয়োগ সিরাজুল মোস্তফা কেন্দ্রে; জেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফরিদ বাঁধ মেরামতে স্বস্তি পাচ্ছে কুতুবদিয়ার মানুষ
বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১০:২৯ পূর্বাহ্ন

ক্রেডিট কার্ডের গ্রাহকদের জন্য সুখবর

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০ ৪:৫৯ অপরাহ্ণ | সম্পাদনা: সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০ ৪:৫৯ অপরাহ্ণ

[ad_1]

ঢাকা, ২৪ সেপ্টেম্বর – ক্রেডিট কার্ড গ্রাহকদের কাছ থেকে কোনো অবস্থাতেই ব্যাংকগুলো আর ২০ শতাংশের বেশি সুদ আদায় করতে পারবে না।

বৃহস্পতিবার এক সার্কুলারে ক্রেডিট কার্ডের সুদ হার নির্ধারণ করে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো ওই সার্কুলার পাঠানো হয়েছে। আগামী ১ অক্টোবর থেকে এ নির্দেশনা কার্যকর হবে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালের ৩ অগাস্ট ক্রেডিট কার্ড বিষয়ে একটি নীতিমালা জারি করেছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। তাতে বলা হয়েছিল, ক্রেডিট কার্ডের সুদের হার সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের অন্যান্য ঋণের সুদের সর্বোচ্চ সুদহারের চেয়ে ৫ শতাংশের বেশি হবে না এবং এই সুদহার কেবল মাত্র অপরিশোধিত বকেয়া স্থিতির ওপর প্রযোজ্য হবে।

ওই নীতিমালার নির্দেশনা অনুযায়ী, ক্রেডিট কার্ডে নির্ধারিত সীমার সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ আগাম হিসেবে নগদ উত্তোলন করা যাবে এবং ক্রেডিট কার্ডের বিপরীতে গ্রাহককে কোনো আনসলিসিটেড ঋণ বা অন্য কোনো ঋণ দেওয়া যাবে না। কিন্তু সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, কোনো কোনো ব্যাংক উক্ত নির্দেশনা লঙ্ঘন করে ক্রেডিট কার্ডের বিপরীতে বিভিন্ন নামে বিভিন্ন প্রকার নগদে উত্তোলনযোগ্য ঋণ সুবিধা দিচ্ছে; যা ব্যাংকের ঋণ ঝুঁকি বৃদ্ধি করছে এবং এ ধরনের ঋণের উপর ফ্ল্যাট রেটে অযৌক্তিকভাবে বেশি সুদ আরোপ/আদায় করছে; যা গ্রাহকের স্বার্থ ক্ষুণ্ণ করছে।

আরও পড়ুন : মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় হতাহতদের পৌনে ২ কোটি টাকা সহায়তা প্রধানমন্ত্রীর

এছাড়া কোনো কোনো ব্যাংক ক্রেডিট কার্ডের পরিশোধ না করা বিলের ওপর লেনদেনের তারিখ থেকেই সুদ আরোপ এবং পরিশোধ না করা বিলের বিপরীতে ‘প্রগ্রেসিভ রেটে’ বিলম্ব ফি আদায় করছে বলেও অভিযোগ পাওয়ার কথা জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

সার্কুলারে বলা হয়, এ অবস্থায় ক্রেডিট কার্ড লিমিটের বিপরীতে ঋণ সুবিধাসহ সুদ/মুনাফা যৌক্তিকীকরণ এবং গ্রাহকদের স্বার্থ সংরক্ষণের জন্য কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

>> ক্রেডিট কার্ডের সুদ/মুনাফার ওপর ২০ শতাংশের বেশি সুদ নির্ধারণ করা যাবে না।

>> ক্রেডিট কার্ডের বিল পরিশোধের জন্য নির্ধারিত সর্বশেষ তারিখের পরের দিন থেকে বিলের ওপর সুদ/মুনাফা আরোপ করা যাবে। এক্ষেত্রে কোনোভাবেই লেনদেনের তারিখ থেকে সুদ আরোপ করা যাবে না।

>> বিদ্যমান নীতিমালা অনুযায়ী ক্রেডিট কার্ডের ওপর সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ নগদে উত্তোলনযোগ্য ঋণ সুবিধা ছাড়া অন্য কোনো নামে নগদে উত্তোলনযোগ্য ঋণ সুবিধা দেওয়া যাবে না।

>> বিলম্বে পরিশোধিত কোনো বিলের বিপরীতে শুধুমাত্র একবার বিলম্ব ফি (অন্য যে নামেই অভিহিত করা হোক না কেনো) আদায় করা যাবে।

এছাড়া আগের নীতিমালার অন্যান্য শর্ত অপরিবর্তিত থাকবে বলে বাংলাদেশ ব্যাংক জানিয়েছে।

সুত্র : যুগান্তর
এন এ/২৪ সেপ্টেম্বর



[ad_2]

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::