বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৫২ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
কক্সবাজার পোস্টে আপনাকে স্বাগতম, আমাদের সাথে থাকুন,কক্সবাজারকে জানুন......

কলাতলীতে মৃতের ৫৪ দিন পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন : দেখতে উৎসুক জনতার ভীড়

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: ডিসেম্বর ২১, ২০২০ ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: ডিসেম্বর ২১, ২০২০ ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ

কক্সবাজারের রামু উপজেলার মিঠাছড়ি ইউনিয়নের ফকিরাঘোনা এলাকায় শ^শুরবাড়িতে জামাই খুনের ঘটনায় দাফনকৃত দেলোয়ারের লাশ প্রায় দু’মাস(৫৩ দিন)পর ময়নাতদন্তের জন্য কবর থেকে উত্তোলন হয়েছে।

সোমবার (২১ ডিসেম্বর) রামুর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভুমি) মো: সরওয়ার উদ্দিন ও জেলা গোয়েন্দা সংস্থা (সিআইডি) এর ওসি মনির হোসেনের উপস্থিতিতে মধ্য কলাতলির কবর স্থান থেকে মৃত দেলোয়ারের লাশ তুলে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

পরে বিকালে তার ময়না তদন্ত শেষে একই স্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়। এর আগে লাশ উত্তোলনের এ দৃশ্য দেখতে কবরস্থান আশপাশে শত শত উৎসুক জনতা ভীড় জমায়।

শহরের কলাতলীর মৃত কালা মিয়ার পুত্র দেলোয়ার হোসেন গত ২৯ অক্টোবর মিঠাছড়িতে তার শ^শুর বাড়িতে বেড়াতে যায়। পরদিন ৩০ অক্টোবর রাতে শ^শুরবাড়ির লোকজন কর্তৃক তাকে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠে। অভিযোগে উল্লেখ হয় হত্যার পর শ^শুরবাড়ির লোকজন ঘটনাটি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে দেলোয়ার আত্মহত্যা করেছে বলে তার বাপের বাড়িতে খবর দেয়।

নিহত দেলোয়ার হোসেনের ছোট ভাই সরওয়ার কামাল জানান, ‘‘মৃত্যুর খবর পেয়ে দেলোয়ারের শ^শুরবাড়িতে গিয়ে দেখি লাশ রান্না ঘরে পড়ে আছে। পরে লাশ সেখান থেকে উদ্ধার করে কলাতলীতে এনে দাফন করি। ঘটনার পরে নিহত দেলোয়ারের শ^শুরবাড়িতে গিয়ে পরদিন তার রক্তাক্ত জামা কাপড় পেয়ে সন্দেহ জাগে তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে।

এ ঘটনায় সরওয়ার কামাল বাদী হয়ে ২ শ্যালক ২ শালিকা,শ^শুড়ী ও স্ত্রীকে অভিযুক্ত করে ৫ জনরে বিরুদ্ধে কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত রামু-১ এ হত্যা মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং- সিআর-২৬২/২০২০। আদালত এই মামলা তদন্তের জন্য সিআইডিকে দায়িত্ব দেন। দীর্ঘ দেড় মাসেরও বেশি সময় তদন্ত করে অবশেষে ২১ ডিসেম্বর আদালতের নির্দেশেই মৃত দেলোয়ার হোসেনের লাশ মধ্য কলাতলীর কবরস্থান থেকে উত্তোলন করা হয়েছে।

সিআইডির ওসি মনির হোসেন জানান সুরত হালে প্রথমিক ভাবে দেখে মনে হয়েছে দেলোয়ারকে হত্যা করা হতে পারে।তবে বিস্তারিত ময়না তদন্তের রিপোর্ট আসলে জানা যাবে।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::