রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ১২:০৫ পূর্বাহ্ন

কক্সবাজারে ৩ রেডক্রিসেন্ট কর্মকর্তার ‘অপকর্ম’র লিফলেট

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: মে ৬, ২০১৮ ১১:০১ অপরাহ্ণ | সম্পাদনা: মে ৬, ২০১৮ ১১:০১ অপরাহ্ণ

কক্সবাজার রেডক্রিসেন্টর তিন কর্মকর্তার ‘অপকর্ম’র ফিরিস্তি তুলে ধরে একটি লিফলেট বিলি হয়েছে। ‘কক্সবাজারের সচেতন জনগণ এবং কক্সবাজার রেডক্রিসেন্টর আজীবন সদস্যবৃন্দ’র সৌজন্যে গত দু’দিন ধরে কক্সবাজারের বিভিন্ন স্থানে এই লিফলেট বিলি করা হয়েছে বলে জানা গেছে। কিছু অচেনা ব্যক্তি এসব লিফলেট বিলি করছে। এই নিয়ে লোকজনের মাঝে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। বিশেষ করে রেডক্রিসেন্টর মতো নামী সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের অপকর্ম’র খবরে লোকজন ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ‘নাজমুল-একরাম চক্র থেকে কক্সবাজার রেডক্রিসেন্টকে রক্ষা করুন’ শ্লোগানে লিখিত ওই লিফলেট গত দু’দিন কক্সবাজার শহরের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি অফিস, আদালত এলাকা, বাজার ও রাস্তাঘাটে বিতরণ করা হচ্ছে। কিছু অচেনা লোক এই লিফলেটগুলো বিতরণ করছে। রেডক্রিসেন্টর মতো প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তার অপকর্মের ফিরিস্তি তুলে প্রকাশ হওয়া ওই লিফলেট লোকজন খুব আগ্রহ নিয়ে পড়তে দেখা গেছে।

ওই লিফলেট লেখা হয়েছে, নাজমুল আজম খান, একরাম এলাহী ও সেলিম আহামদের নেতৃত্বে একটি সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন তাদের ‘স্বার্থের’ পক্ষে কাজ করছে। এই সিন্ডিকেটটি দীর্ঘ ধরে কৌশলে রেডক্রিসেন্ট সোসাইটিকে ব্যবহার করে নানা কুকীর্তি চালিয়ে আসছে। তারা নিয়োগ বাণিজ্য, ত্রাণ সামগ্রী বিক্রি, ত্রাণের টাকা আত্মসাৎ, চাকুরির প্রলোভন দিয়ে নারীদের ‘ভোগের সামগ্রী’তে পরিণত করেছে। এসব অপকর্ম এখন তাদের নিত্তনৈমত্তিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

আর্থিক সুবিধা নিয়ে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংশ্লিষ্ট সংগঠনের ত্রাণ রেডক্রিসেন্টের মাধ্যমে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিতরণ করে দিয়েছে একরাম এলাহী ও সেলিম আহামদ। প্রশিক্ষিত স্থানীয় যুুব রেডক্রিসেন্টর সদস্যদের বাদ দিয়ে আত্মীয়-স্বজনদের নিয়ে দিয়েছে তারা। কিছু যুব সদস্যদের দৈনিক ভিত্তিতে নিয়োগ দিলেও নিয়মিত তাদের সম্মানী দেয়নি। এমনকি যুব সদস্যদের খাবারের টাকা পর্যন্ত আটকে রেখেছে। পালংগার্ডেনে রাখা রেড ক্রিসেন্টের কোটি টাকা মালামাল আত্মসাৎ করেছে এই সিন্ডিকেট। অতীতে অনিয়ম-দুর্নীতির অপরাধে নাজমুল আজম খান ও একরাম এলাহীর বিরুদ্ধে দুদকে মামলা তদন্তাদীন রয়েছে।

ছড়িয়ে পড়া এই লিফলেটে নাজমুল-একরাম সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের কাছে আহ্বানও জানানো হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না দিলে কক্সবাজারে রেডক্রিসেন্টের সুনাম ক্ষুন্ন হবে উল্লেখ করা হয়।

এই বিষয় বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে সেলিম আহামেদ বলেন, একটি মহল ষড়যন্ত্রমূলকভাবে এই লিফলেট বিতরণ করছে। এটার কোনো ভিত্তি নেই। আমাদের যদি দোষ থাকে তাহলে তারা সামনে এসে বলতে পারে। গোপনে এসব কাজ কেন করছে তাও বুঝতে হবে। অবশ্যও গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবেও তারাও এটা করতে পারে। এছাড়া বেশি কিছু বলার নাই আমার।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::