শিরোনাম ::
উখিয়ায় মাদক প্রতিরোধ ও অপরাধ দমনে কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত একসঙ্গে ৪ সন্তান জন্ম দিলেন মহেশখালীর এক গৃহবধূ! বান্দরবানের দুর্গম অঞ্চলে ঝরে পড়া শিশুদের জন্য উদ্বোধন শিশু প্রতিভা বিকাশ কেন্দ্রের বান্দরবান দুই শতাধিক প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উখিয়ায় পালস’র উদ্যোগে বিশ্ব শান্তি দিবস পালিত সীমান্তে গুলির শব্দ থামছে না উখিয়ায় প্রশাসনের অভিযানে ৩টি ড্রেজার মেশিন ও ২টি বন্দুকসহ অস্ত্র উদ্ধার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আবারো খুন মুক্তি কক্সবাজার-এর উদ্যোগে ব্যবসায়ী ও উপকারভোগীদের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত পালস-এর উদ্যোগে “বর্ণবাদ-শান্তি ও সম্প্রীতির অন্তরায়” বিষয়ক বির্তক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:০২ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..

কক্সবাজারে ১০ একর বনভূমি দখলমুক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট: সোমবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২১

কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগের আওতাধীন ঈদগড় রে‌ঞ্জের ঈদগড় সদর বি‌টের বরবিল চরপাড়া ( বর্মাপাড়া) নামক হেদারঝিরি এলাকায় অবৈধ স্থাপনা নির্মাণকালে জবরদখলকৃত ১০ একর বনভূমি উদ্ধার করা হয়েছে।

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন সরকারের নির্দেশে
রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে ১০ একর বনভূমি জবরদখল মুক্ত করে উচ্ছেদ করা হয়েছে।

এতে করে সরকারী সম্পদ ভূমিদস্যুদের হাত থেকে উদ্ধার করা হয়েছে প্রায় ১০ একর জমি। তবে ভূমিদস্যুদের কাউকে আটক করতে পারেনি।
২৪ ডিসেম্বর (শুক্রবার ) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ঈদগড় রেঞ্জের আওতাধীন ঈদগড় সদর বিটের বরবিল চরপারার হেদারঝিরি এলাকায় রেঞ্জ কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে বিট কর্মকর্তা ও স্টাফদের সহযোগিতায় অভিযান পরিচালনা করে অবৈধ ভাবে জবরদখলকৃত জায়গায় স্থাপনা উচ্ছেদ করে জবরদখল মুক্ত করা হয়।বিষয়টি অবগত করেছেন ঈদগড় রেঞ্জ কর্মকর্তা মো.মোস্তাফিজুর রহমান ।

তিনি বলেন ভূমিদস্যুদের জায়গা হবে না,। যারা বন বিভাগের জমি দখল করে জবরদখল করছে তাদের আমরা কঠোর হাতে প্রতিরোধ করবো। বনবিভাগের জমিতে অবৈধভাব স্থাপনা নির্মাণ ও সংরক্ষিত বনাঞ্চল জবরদখলের দায়ে অভিযান চালিয়ে ১০ একর জমি উদ্ধার করা হয়েছে । অভিযানে ঈদগড় বিট কর্মকর্তা ,ভিলেজারগণসহ স্টাফগণ অংশ গ্রহণ ক‌রে।
সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. মোস্তাফিজুর রহমান।

কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন সরকার বলেন, সরকারি বনভূমি উদ্ধারে বনবিভাগ সচেষ্ট রয়েছে। সরকারি জমিতে কেউ স্থাপনা নির্মাণ করলে উচ্ছেদ করা হবে এবং জবরদখল কারীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে বনভূমি রক্ষার্থে যথাযথ ভূমিকা পালন করবো। অভিযান চালিয়ে ভূমি জবরদখল এবং পাহাড়খেকোদের আইনের আওতায় আনা হবে। বন অপরাধ দমনে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান তিনি।


আরো খবর: