শিরোনাম :
সেই রাতে আমি জীবনের মূল্যবান সম্পদ হারিয়েছি: শবনম পারভীন সুপার ওভারে স্বস্তির জয় বেঙ্গালুরুর বিএনপির রাজনীতিতে চরম দুঃসময় চলছে : ওবায়দুল কাদের নাগরিক সেবায় যত বেশি ইতিবাচক কাজ তত বেশি পুরস্কার : আইজিপি কানাডায় রেড অ্যালার্ট জারি: বার, রেঁস্তোরা ও থিয়েটার হল ২৮ দিনের জন্য বন্ধ ঘোষণা আলীকদমে সাতটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিশু বান্ধব আসবাব সামগ্রী বিতরণ সিলেটে নববধু ধর্ষণে অভিযুক্তদের রাজনৈতিক পরিচয় নাকচ করছে আওয়ামী লীগ ছাত্রাবাসে দলবদ্ধ ধর্ষণ মামলার আসামি মাহফুজুর গ্রেপ্তার ড্রাইভার মালেকের মতো চুনোপুঁটিদের ধরে লাভ নেই চীনের চূড়ান্ত শক্তির প্রদর্শন, একসঙ্গে ৫ সমুদ্রে নজিরবিহীন যুদ্ধ মহড়া!
মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:১৩ অপরাহ্ন

কক্সবাজারে গ্রাম আদালত সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: জুন ২৬, ২০১৮ ২:১৩ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: জুন ২৬, ২০১৮ ২:১৩ পূর্বাহ্ণ

আতিকুর রহমান মানিক ::
ইউনিয়ন পর্যায়ের গ্রাম আদালতে বিচার কার্যকর, স্থানীয় জনগণের মধ্যে সচেতনতা বাড়ানো এবং তাদের সেবা নিতে উৎসাহ দিতে প্রকল্প ভুক্ত ইউনিয়ন পরিষদকে কাজ করার জন্য ও যেকোন বিষয়ে সহযোগিতা কিভাবে বাড়ানো যায় তা নিয়ে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে ।
গতকাল সোমবার বিকেল ৪ টার দিকে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ‘গ্রাম আদালত সম্পর্কে ব্যাপক জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে গণমাধ্যামের ভুমিকা’ শীর্ষক মতবিনিময়’ সভা স্থানীয় সরকারের (ভারপ্রাপ্ত) উপ-পরিচালক মো. আশরাফুল আফসারের সভাপতিত্বে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্য জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, ইউনিয়ন পর্যায়ে ছোট ছোট যে অপরাধ হয় তা সমাধান করেন গ্রাম আদালত। এ আদালতের মাধ্যমেই অনেকই ন্যায় বিচার পাচ্ছে। বিচার মিমাংসার ক্ষেত্রে গ্রাম পর্যায়ে সমাধান আসলে সরকারেও সফলতা আসবেন। গ্রাম পর্যায়ের শালিসকে আইনি কাঠামোতে নিয়ে আশাই গ্রাম আদালতের কাজ। এ সময় গ্রাম আদালেতের বিভিন্ন দিক নিয়ে বক্তব্য রাখেন, কমিউনিকেশন এন্ড আউটরিচ স্পেশালিস্ট অর্পণা ঘোষ। কর্মশালায় ইউএনডিপির কক্সবাজার ডিস্ট্রিক ফ্যাসিলিটেটর আখ্যাই মং মারমা বলেন, বাংলাদেশে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ প্রকল্প (২য় পর্যায়) জেলার বিভিন্ন উপজেলা পর্যায়ে জাতিসংঘের উন্নয়ন সংস্থা (ইউএনডিপি) ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের যৌথ উদ্যোগে পরিচালিত ‘বাংলাদেশে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্যায়) প্রকল্প-এর আর্থিকও কারিগরি সহায়তায় সহযোগী সংস্থা বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড এন্ড সার্ভিসে ট্রাস্ট এর কর্মশালা আয়োজনে বিশেষ সহযোগিতা প্রদান করে। বর্তমানে কক্সবাজার জেলার মোট ৬ উপজেলার ৩৬টি ইউনিয়নে এ প্রকল্পটি কাজ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এই প্রকল্পের সুনির্দিষ্ট উদ্দেশ্য হলো স্থানীয়ভাবে সহজে,স্বল্প সময়ে, স্বল্প ব্যয়ে এবং স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় বিরোধ নিষ্পত্তিতে গ্রাম আদালতের মূখ্য অংশীজনদের (যারা বিচারিক কাজে যুক্ত থাকবেন বিশেষভাবে ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যবৃন্দ) সক্ষম করে তোলা এবং অন্যায়ের প্রতিকার লাভের জন্য তৃণমূলের দরিদ্র ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠী, বিশেষত নারীদের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়ক হিসেবে ভূমিকা রাখবে। এতে কক্সবাজারের বিভিন্ন পত্রিকার সম্পাদক, সাংবাদিক ও টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধিরা উপস্হিত ছিলেন।

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::