তারিখ: বুধবার, ২২শে মে, ২০১৯ ইং, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Share:

নিজস্ব প্রতিবেদক
এতোদিন সবাই জেনেছিল কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম জয় একজন দক্ষ সেবক। সদা হাসোজ্জ্বল কর্মঠ ও পরিশ্রমী এই কর্মকর্তা প্রজাতন্ত্রের দায়িত্ব অবহেলা করেনি কখনো। তার উপর যখনি যে দায়িত্ব অর্পিত হয়েছে তা নিরলসভাবে পালন করেছেন। প্রয়োজনে ছুঁটে গেছেন অসহায় মানুষের পাশে। অন্যায় বা সমাজের অসাধু ব্যক্তিদের কখনো ছাড় দেননি তিনি। কক্সবাজার জেলায় সরকারের সকল উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে সিনিয়র ও সহকর্মীদের সাথে কাধেঁ কাধঁ মিলিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। বর্তমানে জেলা প্রশাসনের পর্যটন সেলের দায়িত্বে নিয়োজিত রয়েছেন তিনি। জেলা প্রশাসকের নির্দেশনায় তিনি সমুদ্র সৈকতে এনেছেন আমূল পরিবর্তন। পরিচ্ছন্নতাসহ পর্যটকদের সেবায় সুনামের সাথে দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। তার প্রশংসনীয় কার্যক্রম কক্সবাজারসহ জেলা প্রশাসনের সুনাম সমৃদ্ধি করছে প্রতিনিয়ত। সম্প্রতি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে তার অনন্য প্রতিভা দেখা মিলেছে। কবি আসাদ চৌধুরী’র “বারবারা বিডলার কে” কবিতাটি তিনি সুনিপূণ কণ্ঠে আবৃত্তি করেছেন। তার বজ্রকণ্ঠে ফুটে উঠেছে কবিতার বাস্তবতা। আবৃত্তির ভিডিওটি ধারণ করা হয়েছে কক্সবাজার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে। ভিডিওটি অতি অল্প সময়ের মধ্যে ইউটিউব ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। পাঠকদের প্রশংসায় প মূখ তিনি। আবৃত্তি শুনে হৃদয়ে তেজদ্বীপ্ত হয় দেশপ্রেম। প্রতিনিয়ত বাড়ছে সাবক্রাইব, কমেন্টস, লাইকের সংখ্যা। তার অসাধারণ সুপ্ত এই প্রতিভা সম্পর্কে নতুন করে জানলো কক্সবাজারবাসী। এ বিষয়ে আবৃত্তিকার সহকারি কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম জয় বলেন, কলেজ-ভার্সিটি থেকে সাহিত্যের শাখা-প্রশাখা জানার অদম ইচ্ছে ছিল। চেষ্টা করতাম কবিতা পড়ার, আবৃত্ত করার। সেই প্রচেষ্টা থেকে এই সাহস করা। ভাল মন্দ তিনি সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ জানান।

Share:

আপনার মতামত প্রদান করুন ::