শিরোনাম ::
উখিয়ায় মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা অনুষ্ঠিত সামাজিক সংহতি ও শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত উখিয়ার রাজা পালং মাদ্রসা দাখিল পরীক্ষা কেন্দ্রে নানা অভিযোগ, তদন্ত কমিটি গঠিত মুক্তি কক্সবাজারের উদ্যোগে উখিয়ায় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত ফ্রেন্ডশিপের প্রশিক্ষণে চ্যাম্পিয়ন ভালুকিয়া পালং উচ্চ বিদ্যালয়ের নারী ফুটবল টিমকে সংবর্ধনা উখিয়ায় মাদক প্রতিরোধ ও অপরাধ দমনে কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত একসঙ্গে ৪ সন্তান জন্ম দিলেন মহেশখালীর এক গৃহবধূ! বান্দরবানের দুর্গম অঞ্চলে ঝরে পড়া শিশুদের জন্য উদ্বোধন শিশু প্রতিভা বিকাশ কেন্দ্রের বান্দরবান দুই শতাধিক প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উখিয়ায় পালস’র উদ্যোগে বিশ্ব শান্তি দিবস পালিত
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৪০ অপরাহ্ন
নোটিশ::
কক্সবাজার পোস্ট ডটকমে আপনাকে স্বাগতম..

আব্দুল মোমেনকে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ফোন

প্রতিবেদকের নাম:
আপডেট: শুক্রবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২১
আব্দুল মোমেনকে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ফোন

[ad_1]

নিজস্ব প্রতিবেদক: পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনকে ফোন করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন। বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ওয়াশিংটন থেকে ব্লিঙ্কেন মুঠোফোনে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে কথা বলেন। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনালাপের বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিজেই নিশ্চিত করেন।


এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, প্রায় ৩০ মিনিটের আলোচনায় আগামী বছর সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তিতে দুই দেশের সহযোগিতা এগিয়ে নেওয়ার বিষয়ে তারা কথা বলেন। এ সময় র‌্যাব এবং র‌্যাবের সাবেক ও বর্তমান সাত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার প্রসঙ্গটি তোলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ বিষয়ে আলোচনার আশ্বাস দেন।


জানা গেছে, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন যখন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনকে ফোন করেন, তখন তিনি বঙ্গভবনে ছিলেন। ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দর সঙ্গে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সৌজন্য সাক্ষাৎ ও নৈশভোজে যোগ দিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বঙ্গভবনে থাকাকালে ফোনটি ধরেন। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বুধবার সকালে জানানো হয়, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিঙ্কেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে কথা বলতে চান।


পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, প্রায় ৩০ মিনিটের ফোনালাপের সময় মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আগামী বছর যৌথভাবে দুই দেশের সম্পর্কের ৫০ বছর উদ্‌যাপন নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এ সময় দুই দেশের সম্পর্ককে এগিয়ে নিতে অনেকগুলো ফোরামে আলোচনা হবে। দুই দেশের মধ্যে উচ্চপর্যায়ের সফর বিনিময় হবে।


র‌্যাবের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে জানতে চাইলে আব্দুল মোমেন বলেন, র‌্যাব গঠনের পর থেকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার ক্ষেত্রে কোনো রকম বাড়াবাড়ি করলে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হয়। তাই র‌্যাবের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা অত্যন্ত অপ্রত্যাশিত। কারণ, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের নিয়মিত আলোচনা হচ্ছে। অথচ এ সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে যুক্তরাষ্ট্র তা বাংলাদেশকে জানায়নি। অপ্রত্যাশিতভাবে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হলে তা বাংলাদেশের জন্য অসুবিধার সৃষ্টি করে।


এ সময় মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ বিষয়ে আলোচনার কথা বলেন। তিনি আগামী বছর মানবাধিকার বিষয়ে আলাদা সংলাপ করা যায় কি না, সে বিষয়টির উল্লেখ করেছেন। অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে জানান, নতুন মার্কিন প্রশাসন মানবাধিকারের ওপর অনেক জোর দিয়েছে।


এ সময় আব্দুল মোমেন বলেন, ‘ভবিষ্যতে আমাদের অনেক বিষয়ে কাজ করার সুযোগ আছে। আপনাদের বিশেষ কিছু থাকলে আমাদের জানাবেন। আমাদের সঙ্গে আলোচনা না করে কোনো ব্যবস্থা নেবেন না। আপনার কাছে যখন আমার নম্বরটা আছে, যেকোনো সময় আপনি আমাকে ফোন করতে পারেন। ব্লিঙ্কেনও এ সময় বলেন, আপনার কোনো ইস্যু থাকলে আপনিও আমাকে সরাসরি ফোন করবেন।’


সান নিউজ/এমকেএইচ


[ad_2]


আরো খবর: