শিরোনাম :
নাইট কোচে ডাকাতি: গ্রেপ্তারকৃত বাস চালক সহ তিনজনকে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন মহেশখালী থেকে ছিনতাই হওয়া মটরসাইকেল উদ্ধার : গ্রেফতার-১ টেকনাফে ১০হাজার ইয়াবা বড়িসহ আটক-১ কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে পরিবেশ, পর্যটন ও উন্নয়ন বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত সেন্টমার্টিনে কোস্টগার্ডের অভিযানে ইয়াবা ও গাজাসহ আটক ২ উৎসবমুখর পরিবেশে উখিয়া প্রেসক্লাবের নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র জমা স্বাস্থ্যবিধি না মানলে প্রয়োজনে কারাদন্ড দেয়া হবে-জেলা প্রশাসক চকরিয়ায় অবৈধ বসতি গুঁড়িয়ে দিয়ে এক একর সংরক্ষিত বনভূমি উদ্ধার কক্সবাজার সদরের ইসলামাবাদে কারের ধাক্কায় টমটম চালক নিহত পেকুয়ায় রাতে নির্মিত ৩টি অবৈধ স্থাপনা দিনে উচ্ছেদ
রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৩৮ পূর্বাহ্ন

অবশেষে দেখা মিললো হাজী সেলিমের

প্রতিবেদকের নাম::

প্রকাশ: নভেম্বর ৩, ২০২০ ৫:২৪ পূর্বাহ্ণ | সম্পাদনা: নভেম্বর ৩, ২০২০ ৫:২৪ পূর্বাহ্ণ

[ad_1]

অবশেষে দেখা মিললো হাজী সেলিমের

ঢাকা, ০৩ নভেম্বর – এক সপ্তাহের বেশি সময় আড়ালে ছিলেন ঢাকা-৭ আসনের সাংসদ হাজী মোহাম্মদ সেলিম। ছেলে ইরফান সেলিমের হাতে নৌবাহিনী এক কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনায় খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো না তাকে। এই নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে চলছিলো নানা গুঞ্জন। অবশেষে দেখা মিললো তার।

মঙ্গলবার সকালে নাজিমউদ্দিন রোডে ঢাকার পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানাতে আসেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। এসময় মন্ত্রীর পাশেই হাজী সেলিমকে দেখা যায়।

দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যের সূত্রে জানা যায়, জেলহত্যা দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে মঙ্গলবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে এই সাদা এসইউভিতে চড়ে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে আসেন হাজী সেলিম। তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও হাজী সেলিমের মধ্যে সে সময় বাক্যালাপ হতে দেখা যায়নি। সকাল সোয়া ১০টার দিকে মন্ত্রী কারাগার থেকে চলে গেলে হাজী সেলিমও সাড়ে ১০টার দিকে বেরিয়ে যান। এ সময় বড় ছেলে সোলায়মান সেলিম তার সঙ্গে ছিলেন।

আরও পড়ুন : বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পাম্প ক্রয়ে অনিয়ম, ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ছেলে গ্রেপ্তার হাওয়ার পর হাজী সেলিমকে বাইরে খুব একটা দেখা না গেলেও স্থানীয়রা জানিয়েছেন, গত শুক্রবার চকবাজার শাহী জামে মসজিদে নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন তিনি।

গত ২৫ অক্টোবর রাতে ধানমণ্ডিতে হাজী সেলিমের গাড়ি থেকে কয়েকজন নেমে নৌবাহিনীর এক কর্মকর্তাকে মারধর করেন। এরপর একাধিক মামলায় এখন ডিবির রিমান্ডে আছেন হাজী সেলিমপুত্র ইরফান। মদ্যপান ও বেআইনিভাবে ওয়াকিটকি ব্যবহার করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে তার দেড় বছরের কারাদণ্ডও হয়েছে। সাজা হওয়ায় ইরফানকে হারাতে হয়েছে কাউন্সিলরের পদ। সাংসদের পরিবারের ‘অবৈধ সম্পদের’ তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহে অনুসন্ধান শুরুর ঘোষণা দিয়েছে দুদক।

সুত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এ/ ০৩ নভেম্বর

[ad_2]

কক্সবাজার পোস্ট.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
কক্সবাজার পোস্ট সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ
এই জাতীয় আরো খবর::